তিন দেশের উদ্যোগে ক্যাপসুল আকারে আসছে করোনার টিকা

আন্তর্জাতিক

ডেস্ক রিপোর্ট: বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের তাণ্ডব চলছেই। প্রতিদিনই এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছে হাজার মানুষ। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের প্রতিষেধক হিসেবে ইতোমধ্যেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে।

এর মধ্যেই নতুন সুসংবাদ। এবার করোনা টিকা আসছে ক্যাপসুল আকারে। আমেরিকা ও ইসরায়েল ও ভারতের যৌথ উদ্যোগে আসছে দ্বিতীয় প্রজন্মের এই টিকা।

জানা গেছে, ইসরায়েল-আমেরিকান কোম্পানি ওরামেড এবং ভারতীয় কোম্পানি প্রেমাস বায়োটেক যৌথভাবে তৈরি করেছে এই টিকা। এর নাম দেওয়া হয়েছে ওরাভ্যাক্স। এ বছরেই এর প্রথম দফা ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা শুরু হবে বলে এক ঘোষণায় বলা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আগামী জুনেই শুরু হবে এই পরীক্ষা। এখন পর্যন্ত এর সফলতা সম্পর্কে কোনও নিশ্চয়তা দেওয়া যায় না। তবে পরীক্ষা শেষে বোঝা যাবে এটা কতটা কার্যকর। তা জানতে হয়তো এক বছর বা তারও বেশি সময় লাগতে পারে।

তারপরই আসবে একে অনুমোদন দেওয়া না দেওয়ার বিষয়। একে বলা হচ্ছে দ্বিতীয় প্রজন্মের টিকা। তবে এটা প্রয়োগ সহজ এবং বিতরণ সহজসাধ্য।

ওরামেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নাদাভ কিদ্রোন বিবৃতিতে বলেছেন, মুখে সেবনের টিকা জনগণ বাড়িতে বসে ব্যবহার করতে পারেন। এই টিকা একটি সাধারণ রেফ্রিজারেটরে এবং সংরক্ষণ করা যায় কক্ষ তাপমাত্রায়। ফলে এই টিকা সারাবিশ্বের জন্য ব্যবহারে সহজ হয়ে যাবে। অনলাইন সায়েন্স এলার্টে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে।

ইউনিভার্সিটি অব ইস্ট অ্যাঙ্গলিয়াতে মেডিসিনের প্রফেসর পল হান্টার এক্ষেত্রে সতর্কতা উচ্চারণ করেছেন। তিনি বলেছেন, মুখে সেবনের টিকার মূল্যায়ন পরীক্ষা করতে হবে যথাযথভাবে। তবে এই টিকা তাদের কাছে খুব মূল্যবান হবে, যারা গায়ে সূচ ফোটাতে ভয় পান।

সূত্র: জেরুজালেম পোস্ট, ইন্ডিয়া টুডে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *