তৈয়বুর হত্যায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

সারাবাংলা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জে পারিবারিক কলহের জেরে তৈয়বুর রহমান হত্যা মামলায় লুৎফুর রহমান (৩৫) নামের একজনকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি হচ্ছে সদর উপজেলার গৌরারং ইউনিয়নের আদর্শগ্রামের মৃত কুদরত উল্লার ছেলে।  মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মহিউদ্দিন মুরাদ এ রায় ঘোষণা করেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, গত ২০০৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে সুনামগঞ্জের গৌরারং ইউনিয়নের আদর্শগ্রাম এলাকায় তালতো ভাই লুৎফুর রহমানের হাতে খুন হন তৈয়বুর রহমান। এঘটনায় ওই রাতে নিহতের বোন সিতারুন বেগম বাদি হয়ে ৭ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় পুলিশ তদন্ত করে লুৎফুর রহমান ও মিজানুর রহমানকে আসামি করে আদালতে চার্জসিট দেন। স্বাক্ষী প্রমাণ শেষে গতকাল মঙ্গলবার অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক আসামি লুৎফুর রহমানকে দোষী সাব্যস্থ করে মৃত্যুদণ্ড ও ২৫ হাজার টাকার অর্থদণ্ডে দণ্ডিত করেন। অপর আসামি মিজানুর রহমান দোষী সাব্যস্থ না হওয়ায় তাকে বেকুসর খালাস করা হয়। এদিকে মামলা দায়েরের পর থেকে হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি লুৎফুর রহমান পলাতক রয়েছেন। এ ব্যাপারে অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ আদালতের রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সোহেল আহমদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *