ত্রিশ হেক্টর ধানের ক্ষেত জলের নিচে

সারাবাংলা

ইউসুফ হোসেন, নাগরপুর থেকে
টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলায় হঠাৎ বন্যার পানি বেড়ে যাওয়ায় তলিয়ে গেছে প্রায় ৩০ হেক্টর আমন ধানের ফসলি জমি। এতে ব্যাপক ক্ষতির আশংকা বিরাজ করছে স্থানীয় কৃষকদের মধ্যে। এবার আগাম বন্যার পানি না হওয়ায় পুরো উপজেলায় প্রায় ১ হাজার হেক্টর জমিতে আমন ধানের চাষ হয়েছে বলে নাগরপুর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়। সরেজমিনে, উপজেলার কাঠুরি,বারাপুষা, তিরছা, সেনমাইঝাইল, মামুদনগর, গয়হাটা এলাকায় ঘুরে দেখা যায়, প্রায় সব ধরনের ফসলি জমি বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে পানি আরো বেড়ে যাওয়ার উঁচু স্থানের চাষাবাদের জমিগুলোও ডুবে গেছে।
মামুদনগর ইউনিয়নের কৃষক মনির মিয়া বলেন, গত ৭ দিনে পানি বাড়ায় আমার প্রায় সাত বিঘা জমির ধান তলিয়ে গেছে, পানি দ্রুত না কমলে সব ধান নষ্ট হয়ে যাবে। নাগরপুর সদর ইউনিয়নের কাঠুরি গ্রামের কৃষক নান্নু মিয়া জানায়, ৫ বিঘা জমির আমন ধান প্রায় ১২ দিন যাবৎ পানির নিচে। সব ধান পচে যাওয়ার আশংকায় রয়েছি। এ বিষয়ে নাগরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল মতিন বিশ্বাস বলেন, পুরো নাগরপুর উপজেলায় ১ হাজার হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আমাদের জানা মতে, এখন পর্যন্ত ৩০ হেক্টর জমির ধান বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। পানি কমে গেলে সঠিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যাবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *