দশমিনায় পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ

সারাবাংলা

দশমিনা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : দশমিনা উপজেলার আলীপুর ইউনিয়নের খলিশাখালী এলাকায় পল্লী বিদ্যুতের সংযোগ দেওয়ার কথা বলে স্থানীয় ইলেক্ট্রিশিয়ান ও দালালদের মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একটি চক্রের বিরুদ্ধে। গত দুই বছর আগে ওই এলাকার ৭০ পরিবারের থেকে চার থেকে পাচ হাজার করে টাকা নিলেও এখনো সেখানে বিদ্যুৎ সংযোগ পেীছেনি। এঘটনায় ওই এলাকার মানুষ দশমিনা পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিসে লিখিত অভিযোগ করেছেন। স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় ২০২০ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে দশমিনা উপজেলায় শতভাগ এলাকা পল্লী বিদ্যুতায়নের আওতায় আসার কথা থাকলেও উপজেলার আলীপুর ইউনিয়নের খলিশাখালী এলাকার ৭০ পরিবার এখনো বিদ্যুৎ সংযোগ পায়নি। স্থানীয় গ্রাহক আইয়ুব আলী খান(৬৫) জানান, পল্লী বিদ্যুতের স্থানীয় ইলেক্টিশিয়ান আবুল কালাম ও স্থানীয় দালাল মো: খলিল এলাকার ৭০ গ্রাহকের থেকে চার পাচ হাজার করে টাকা নিয়েছেন কিন্তু এখনো আমরা বিদ্যুৎ সংযোগ পাইনি। কামরুল হাসান (৩৫) জানান, আমাদের এলাকার চারপাশের গ্রাহক বিদ্যুৎ সংযোগ পেলেও আমরা দুই বছরেও সংযোগ পাইনি। এব্যাপারে অভিযুক্ত ইলেকট্রিশিয়ান আবুল কালাম জানান, আমি ২০ জন গ্রাহকের থেকে টাকা নিয়েছি তাদের ঘরে ওয়ারিং করা হয়েছে কিছুদিনের মধ্যে সংযোগ প্রদান করা হবে বাকী গ্রাহকের টাকা খলিলের কাছে। স্থানয়ী দালাল মো: খলিল জানান, আমি ঢাকায় আছি এলাকায় ফিরে কালামের সাথে আলোচনা করে সকল গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হবে। দশমিনা পল্লী বিদ্যুতের ওয়ারিং ইনস্পেক্টর আবুল কালাম আজাদ জানান, ওই এলাকার ১৮ জন গ্রাহকের মিটারের টাকা জমা পেয়ে তাদের ঘরে মিটার স্থাপন করা হয়েছে কিছুদিনের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করা হবে। দশমিনা পল্লী বিদ্যুতের এজিএম স্বপন কুমার পাল জানান, টাকা নেওয়ার বিষয়টি তদন্ত করে সত্যতা পেয়ে ওই এলাকার গ্রাহকদের মামলা করার পরামর্শ দিয়েছি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *