দুধ দিচ্ছে না মহিষ , অভিযোগ নিয়ে থানায় হাজির কৃষক!

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কথায় বলে, ‘যে গরু দুধ দেয়, তার লাথিও খেতে হয়’। কিন্ত যে মহিষ দুধ দেয় না, তার জন্য কী করা উচিত? এর উত্তর খুঁজে না পেয়েই হয়তো পুলিশের কাছে হাজির হয়েছিলেন ভারতের এক কৃষক। না, তিনি মহিষের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে যাননি। তবে যা করেছেন, তাতেও হকচকিয়ে গেছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

মধ্য প্রদেশের সেই লোকের অভিযোগ, তার মহিষ ভালোই ছিল। প্রতিদিন কয়েক লিটার দুধও দিত। হঠাৎ করেই সে দুধ দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। এর পেছনে নিশ্চয়ই কোনো ষড়যন্ত্র রয়েছে! সেই রহস্যের সমাধানের জন্যই থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন মহিষের মালিক।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, সম্প্রতি মহিষটি নিয়ে স্থানীয় নয়াগাঁও থানায় হাজির হয়েছিলেন ৪৫ বছরের বাবুলাল যাদব। তিনি অভিযোগ করেছেন, এই মহিষ দিব্যি দুধ দিচ্ছিল। সেই দুধ দিয়ে চাহিদা মেটাতো তার পরিবার। কিন্তু পাঁচদিন হলো দুধ দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে মহিষটি। এমন নয় যে, বাবুলাল তাকে খেতে দেননি বা সে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তাহলে দুধ দিচ্ছে না কেন?

বাবুলালের বক্তব্য, ওঝা বা তান্ত্রিক দিয়ে তন্ত্রমন্ত্র করে মহিষের দুধ দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে গ্রামের কেউ। পুলিশকে এর সমাধান করতে হবে। কৃষকের এমন বক্তব্যে চরম অস্বস্তিতে পড়ে নয়াগাঁও পুলিশ। তন্ত্রমন্ত্র বা জাদুটোনায় নয়, মহিষটি অন্য কোনো কারণে দুধ দিচ্ছে না- পুলিশ কর্মকর্তারা এ কথা বাবুলালকে বারবার বোঝালেও তিনি তা মানতে রাজি হচ্ছিলেন না।

এদিকে মহিষ সঙ্গে নিয়ে বাবুলালের থানায় যাওয়ার খবর ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এ ঘটনায় মজা পেয়েছেন অনেকে। তবে অভিজ্ঞরা সেই মহিষ নিয়ে কোনো পশু চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *