দুর্নীতির তদন্তের আওতায় পাদ্রীশিবপুর চেয়ারম্যান

সারাবাংলা

বরিশাল ব্যুরো:
অবশেষে দুর্নীতির তদন্তের আওতায় পাদ্রীশিবপুরের চেয়ারম্যান। বরিশাল বাকেরগঞ্জ উপজেলার পাদ্রীশিবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহিদুল হাসান বাবুর সিমাহীন দুর্ণীতির অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১০ জানুয়ারি ইউনিয়ন পরিষদে বাকেগঞ্জ উপজেলার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহকারী প্রোগ্রামার সরকারি চাল বিক্রয় এবং ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগের বিষয় তদন্ত করেন দুর্নীতি দমন কমিশন, প্রধান কর্যলায় ঢাকা স্মারক নং ০০.০১.০৬০০.৬৫২.২৬.০০৩.২০২০-২৬৫৮৬ তারিখ ১৬/০১/২০২০ অভিযোগের তদন্ত করতে যান। এবিষয়ে বাকেরগঞ্জ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহকারী প্রোগ্রামার রবিউল আলম’র সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,আমার কাছে একটি অভিযোগের কপি আসছে তবে সরাসরি দুদক থেকে আসেনি। এটি মাধ্যম হয়ে আমার কাছে এসেছে , আমি ওই ইউনিয়ন পরিষদে গিয়েছিলাম যাদের বিরুদ্ধে তদন্ত। তাদের সবার কাছেই বিষয়টি তুলে ধরেছি এবং স্থানীয় জনগণের বক্তব্য নিয়েছি এ বিষয়ে কিছুদিনের মধ্যেই রিপোর্ট আসবে। ওদিকে মরহুম চেয়ারম্যান আবুল বাসার হারুন এর মৃত্যুতে উপ-নির্বাচনে বাবু আওয়ামী লীগের মনোনয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েই ব্যাপক সিমাহীন দুর্ণীতিতে জড়িয়ে পরে তিনি এতোটাই বেপরোয়া হয়ে পরেন যে নিজ পরিষদের মেস্বারদের সাথে তার অমিল দেখা যায়। তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযোগের বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত দশ টাকা কেজি চাল বিক্রিতে তালিকায় ব্যাপক অনিয়ম। ডিলার বিশ্ব প্রিয়র স্বাক্ষর জাল করে চাল উত্তলন ও মৃত ব্যাক্তির নামে আত্মসাত, বিতারন কার্ডে সাদা কালি দিয়ে মুছে ঘষামাজা করা এবং বিশ্ব প্রিয় বছর আগেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর ডিলার বাদ দেয়ার আবেদন করার পর কিভাবে এতোদিন শহিদুল ইসলাম একসাথে দুটি ডিলার পরিচালনা করে আসছিল। করোনাকালীন জেলেদের চল্লিশ কোজি দেয়ার নিয়ম থাকার পরে ২৫/৩০ কেজি চাল প্রদান করা কালিন যুগান্তর পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। এছাড়া চেয়ারম্যান কর্মসৃজন প্রকল্পের চার নং ওয়ার্ডের কালাম মার্কেট হতে সাতঘর পর্যন্ত রাস্তা ভেকু দিয়ে মাটি কাটা হয়েছে যার ছবি দেওয়া আছে শ্রমিকদের বঞ্চিত করা হয়েছে, সরকারি নিয়ম লংঘন হয়েছে। তদন্ত নিয়ে সচেতন মহল আঙ্গুল তুলছেন চেয়াম্যান তার বাহিনী দিয়ে ঘিরে রাখার পরেও জেলেদের চাল কম দেওয়ার প্রমান মিলেছে। নিরাপত্তার কারনে সরাসরি স্বাক্ষী দিতে পারছেনা তাদের জন্য কোন ব্যাবস্থা রাখা হয়নি। ডিলারদের মাস্টারোলের স্বাক্ষর মিলিয়ে দেখা দরকার মৃত ব্যাক্তির চাল কি সরকারি গোডাউনে ফেরত দেয়া হয়েছে কিনা? ট্যাগ কর্মকর্তা অভিযুক্ত সেখানে তাকে নিয়ে তদন্ত। চেয়ারম্যান ও তার বাহিনী তদন্ত কর্মকর্তার সামনেই আবেদন কারিকে খুজে হাত পা ভেংঙ্গে দেবার হুমকি দিতে থাকে এমন অভিযোগও আসে। চেয়াম্যানের সাজানো লোকের কথা শুনে প্রতিবেদন না দিয়ে গন সুনানি অথবা গোপন তথ্য সংগ্রহ করার দাবি জানিয়েছে সচেতন মহল। নাম প্রকাশ না করা শর্তে এক মহল জানান চেয়ারম্যান মোটা অংকের টাকা নিয়ে ম্যানেজ করতে মাঠে নেমেছে। যেহেতু চল্লিশ দিন কাজের সাইন বোর্ড দেয়ার কথা যেটা কখনই পাদ্রীশিবপুরে দেখা যায় না। ইউনিয়ন বাসীর একটাই দাবি তদন্তের কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছে তারা। চেয়ারম্যান জাহিদুল হাসান বাবুর কাছে মুঠো ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এধরনের অভিযোগ যারা আমার বিরুদ্ধে দিয়েছে তারা আমার শত্রু। এ অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। এলাকায় আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য এভাবে আপনাদের তথ্য দিচ্ছে। আপনারা সাংবাদিক এলাকায় এসে তদন্ত করে দেখেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *