সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
দশমিনায় আওয়ামীলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন নবীগঞ্জে বন্যা দুর্গত এলাকায় বিভাগীয় কমিশনার নন্দীগ্রামে দই-মিষ্টির প্রতিষ্ঠানে ফের জরিমানা সালথায় আ’লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে আলোচনা সভা ফেনী সদর উপজেলার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব গ্রহণ মুরাদনগরে উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর বর্ণাঢ্য আয়োজন জামালপুরের আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন পাইকগাছায় রাইস মিলের বর্জ্যে পরিবেশ দূষণ, দুর্ভোগে এলাকাবাসী নান্দাইলে পরিকল্পনা মন্ত্রীর স্বেচ্ছাধীন তহবিলের ১০লাখ টাকার চেক বিতরণ সালথায় হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প পাইকগাছায় বিনামূল্যে কৃষকদের মাঝে নয় হাজার নারিকেলের চারা বিতরণ করেন এমপি রশীদুজ্জামান আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রায় মানুষের ঢল প্রধানমন্ত্রী দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লি পৌঁছেছেন উপকূলের উন্নয়নে জাতীয় বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ সালথায় ২০টি নতুন ঢাল উদ্ধার করেছে পুলিশ কাপ্তাই থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতারি পরোয়ানা ভুক্ত পলাতক আসামি আটক ২  মুরাদনগরে রোহিঙ্গা যুবকে সনদ দেওয়ায় ডিবির হাতে আটক ইউপি সচিব জলবায়ু সহিষ্ণুতা অর্জনের লক্ষ্যে বিসিসিটির সংস্কার করা হবে : পরিবেশমন্ত্রী রেমালের আঘাতে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে পাইকগাছা ও কয়রা উপজেলা:এমপি রশীদুজ্জামান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী গণমাধ্যমব্যক্তিত্ব পীযূষ বন্দোপাধ্যায় উত্তরায় মোবাইল ছিনতাইয়ের অভিযোগে গ্রেফতার ৩ ফরিদপুরের সালথায় গ্রীষ্মকালীন পেঁয়াজ চাষ নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীর মামলায় নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান কারাগারে নবীগঞ্জে কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে! পাইকগাছায় রেমালের আঘাতে পিচের রাস্তা ভেঙ্গে ব্যাপক ক্ষতি পটুয়াখালী সোনালী অতীত বনাম দশমিনা সোনালী অতীত ফাইনাল খেলা সম্পন্ন আমাদের চারপাশের প্রকৃতিকে রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে- এমপি রশীদুজ্জামান ঈদের পর কাল থেকে অফিস খুলছে, চলবে নতুন সময় অনুযায়ী এবারের ঈদে ১ কোটি ৪ লাখ ৮ হাজার ৯১৮টি গবাদিপশু কোরবানি দেওয়া হয়েছে আসুন ঈদুল আজহার ত্যাগের চেতনায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী

দেশের উৎপাদিত চায়ের ৫০ শতাংশই জোগান দেয় মৌলভীবাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক
বৃহস্পতিবার, ২৫ মে, ২০২৩, ৬:১৬ অপরাহ্ন

দেশে চা উৎপাদনে সিলেট অঞ্চলের অবদান সবচেয়ে বেশি। চায়ের দেশ হিসেবে সিলেট জেলা সবচেয়ে বেশি পরিচিত হলেও বিভাগের মৌলভীবাজার জেলাই দেশের চা উৎপাদনে ৫০ শতাংশ অবদান রাখছে। যেখানে সিলেট জেলার মোট উৎপাদন মাত্র ৬ শতাংশ।

চা বোর্ডের তথ্য পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, সর্বশেষ ২০২২ সালে দেশে চা উৎপাদন হয়েছে ৯ কোটি ৩৮ লাখ ২৯ হাজার ১৬২ কেজি। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৪ কোটি ৪৮ লাখ ১ হাজার ১০৩ কেজি উৎপাদন হয়েছে মৌলভীবাজার জেলায়, যা মোট বার্ষিক উৎপাদনের ৪৭ দশমিক ৭৫ শতাংশ। অন্যদিকে সিলেট জেলায় চা উৎপাদন হয়েছে ৫৪ লাখ ১০ হাজার ৭২৪ কেজি বা ৫ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

সিলেট, চট্টগ্রাম কিংবা হবিগঞ্জকে ছাড়িয়ে চা উৎপাদনে জেলাভিত্তিক দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে পঞ্চগড়। ২০২২ সালে পঞ্চগড়ে ১ কোটি ৭৭ লাখ ৮১ হাজার ৯৩৮ কেজি বা ১৮ দশমিক ৯৫ শতাংশ চা উৎপাদন হয়েছে।

পরিসংখ্যানে তৃতীয় অবস্থানে থাকা হবিগঞ্জ জেলার উৎপাদন ১ কোটি ৪৭ লাখ ৫৭২ কেজি (১৫ দশমিক ৬৭ শতাংশ), চতুর্থ চট্টগ্রাম জেলা ১ কোটি ১০ লাখ ৬৮ হাজার ৪৩৪ কেজি (১১ দশমিক ৮০ শতাংশ)।

দেশে বর্তমানে চা বাগানের সংখ্যা ১৬৭। মৌলভীবাজার জেলায় ৭৫টি টিএস্টেট (উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাত, বাজারজাত ও নিজস্ব শ্রমিক-কর্মচারী সংবলিত বাগান) ও ১৫টি চা বাগান (২৫ একরের বেশি চা বাগান কিন্তু টিএস্টেটের মতো সুবিধা নেই) রয়েছে। এসব বাগানের মোট আয়তন ১ লাখ ৫৬ হাজার ১৯২ একর। অন্যদিকে হবিগঞ্জ জেলায় ২২টি টিএস্টেট ও তিনটি বাগানের মোট আয়তন ৫৪ হাজার ১৬৬ একর। সিলেট জেলায় ১২টি টিএস্টেট ও সাতটি বাগানের মোট আয়তন ২৮ হাজার ৯৩৬ একর, চট্টগ্রাম জেলায় ১৮টি টিএস্টেট ছাড়াও চার চা বাগানের মোট আয়তন ৩৫ হাজার ১২১ একর। রাঙ্গামাটি জেলার একটি টিএস্টেট ও একটি চা বাগানের মোট আয়তন ৭৯৫ একর, পঞ্চগড় জেলার আটটি চা বাগানের আয়তন ৮ হাজার ৮১৮ একর এবং নতুন করে শুরু হওয়া ঠাকুরগাঁও জেলার একটি চা বাগানের আয়তন ৪১ একর।

বাংলাদেশীয় চা সংসদের সভাপতি মো. শাহ আলম ঢাকা প্রতিদিনকে বলেন, ‘‌ˆমৗলভীবাজার জেলা দেশের চা উৎপাদনে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখছে। পরিবেশগত সুবিধা কাজে লাগিয়ে এখানকার বাগানমালিকরা প্রতি বছর সর্বোচ্চ পরিমাণ চা উৎপাদন করেন। পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত ও সামাজিক জাগরণের কারণে এ জেলার চা সংস্কৃতি স্থানীয় মানুষকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করেছে। চায়ের নিলামসহ অবকাঠামোগত উন্নয়ন ঘটাতে পারছে।’ দেশের সার্বিক চা উৎপাদনে মৌলভীবাজার আরো বেশি ভূমিকা রাখতে পারবে বলে মনে করছেন তিনি।

চা খাতসংশ্লিষ্টরা বলছেন, পাহাড়ি উঁচু ভূমি, পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত ও অনুকূল আবহাওয়া ভালো মানের চা উৎপাদনে সহায়ক। সিলেট অঞ্চলের মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে বছরব্যাপী পর্যাপ্ত বৃষ্টি হওয়ায় চায়ের উৎপাদনও বেশি। যার কারণে প্রতি বছরই এ জেলায় চা বাগানের পরিধি বাড়াচ্ছেন উদ্যোক্তারা। অন্যান্য জেলায় চা বাগানগুলোর হার তুলনামূলক কম হওয়ায় উৎপাদন কম হচ্ছে। শ্রীমঙ্গলে দেশের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক চা নিলাম কেন্দ্র চালু হওয়ায় এখানকার চা উৎপাদনে নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে বলে মনে করছেন তারা।

জানা গেছে, সম্প্রতি দেশে চাহিদার প্রায় সমপরিমাণ চা উৎপাদন হচ্ছে। আমদানিতে কড়াকড়ি ও দেশী বাগানমালিকরা ভালো দাম পাওয়ায় চা উৎপাদন ক্রমেই বাড়ছে। সর্বশেষ বছর ১০ কোটি চা উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও উৎপাদন হয়েছে কিছুটা কম। তবে এ বছর দেশে চা উৎপাদনের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ কোটি ২০ লাখ কেজি। অনুকূল আবহাওয়া থাকলে চা উৎপাদনের লক্ষ্য পূরণ করা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন চা বোর্ড ও বাগানমালিকরা। এক্ষেত্রে মৌলভীবাজার জেলাই চায়ের রেকর্ড উৎপাদনে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছেন তারা।


এই বিভাগের আরো খবর