দেশের হয়ে খেলতে পারিশ্রমিক নেন না এমবাপে

খেলাধুলা

খেলাধুলা ডেস্ক:  ক্লাব ফুটবলে বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা তারকা কাইলিয়ান এমবাপে। তাকে দলে পেতে ২২০ মিলিয়ন ইউরো পর্যন্ত খরচ করতে রাজি ছিলো স্পেনের ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু ফ্রান্স জাতীয় দলের হয়ে সাম্প্রতিক সময়টা ভালো যাচ্ছে না প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) এ তরুণ ফরোয়ার্ডের।

বিশেষ করে সবশেষ ইউরো কাপের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে ফ্রান্সের বিদায়ের বড় দায়টা দেয়া হয় এমবাপের কাঁধেই। কেননা সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে টাইব্রেকারে গিয়ে গোল করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন এ তরুণ তারকা। ২০১৮ সালে ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম কারিগর হলেও, তিন বছরের ব্যবধানে তিনিই যেনো এখন দলের মূল সমস্যা।

ইউরো কাপে টাইব্রেকারে পেনাল্টি মিস করার পুর দলের কাছ থেকে যেমন সমর্থন ও সাহস আশা করেছিলেন তার কিছুই পাননি এমবাপে। দেশের হয়ে খেলতে কোনো টাকা নেন না তিনি। শুধু চান সবাই যেনো খারাপ সময়ে পাশে থাকে। কিন্তু সেটিও না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েছেন ২২ বছর বয়সী এ ফুটবলার।

ল্য ইকুইপকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এমবাপে বলেছেন, ‘ফ্রান্স জাতীয় দলের হয়ে খেলতে আমি কোনোদিন একটি ইউরোও নেইনি আমি। সবসময় জাতীয় দলের হয়ে ফ্রিতেই খেলবো আমি। সবচেয়ে বড় বিষয় হলো, আমি কখনও সমস্যা হতে চাই না।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘কিন্তু একটা সময় থেকে আমার মনে হতে শুরু করেছে, আমিই হয়তো সমস্যা এবং মানুষও ভাবছে আমি একটি সমস্যা। আমি এমন বার্তা পেয়েছি যে আমার ইগোর কারণে আমরা হারছি এবং আমার অনেক বেশি স্বাধীনতা প্রয়োজন। আরও বলা হয়েছে, আমি না থাকলে হয়তো আমরা জিততাম।’

এমন সব কথা শুনে প্রয়োজনে ফ্রান্স জাতীয় দলের বাইরে থাকা বেছে নেয়ার কথাও ভেবেছেন এমবাপে। তার ভাষ্য, ‘এখানে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ফ্রান্স জাতীয় দল। এই দল যদি আমাকে ছাড়া ভালো থাকে, আমি চলে যাবো।’

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *