দেশে করোনার টিকার অভাব নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে করোনার টিকার অভাব নেই। ভবিষ্যতেও হবে না- এমন দাবি করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ইউরোপ-আমেরিকার মত বড় দেশগুলো ঠিকমতো ভ্যাকসিন পাচ্ছে না। বাংলাদেশের প্রত্যেকেই হাসপাতালে চিকিৎসা পেয়েছে।

বুধবার দুপুরে ঢাকা ডেন্টাল কলেজে এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ৭০ লাখ টিকার কার্যক্রম সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে চলছে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশের তুলনায় টিকাদান কার্যক্রমে বাংলাদেশ এগিয়ে আছে।

ভ্যাকসিনের অ্যাপসে প্রায় ২৫ লাখ নিবন্ধন হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

বিরোধী দলের সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, করোনার এই ক্রান্তিকালে বিরোধী দল শুধু সমালোচনাতেই মেতে ছিল। মানুষের পাশে দাঁড়ানোর প্রয়োজনবোধ করেনি।

তিনি বলেন, আশেপাশের দেশগুলোর তুলনায় করোনা প্রতিরোধে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। এখন আর কেউ টিকা নিয়ে সমালোচনা করে না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রথম টিকা নেবার পর তিন মাস পর্যন্ত দ্বিতীয় টিকা নেয়ার সময় থাকে। যত পরে নেয়া হয় টিকার কার্যকারিতা তত বেশি হয়।

তিনি বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুযায়ী ৮ সপ্তাহ পর টিকা দেবার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। যারা প্রথম ডোজ নিয়েছেন তাদের কাছে নতুন করে মেসেজ পৌঁছে যাবে।

টিকা নেয়ার বয়সসীমা ৪০বছরই থাকছে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *