দেশে করোনা শনাক্তের এক বছর পূর্ণ

জাতীয়

ডেস্ক রিপোর্ট: দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের এক বছর পূর্ণ হয়েছে আজ। গত বছরের ৮ মার্চ বিদেশ ফেরত দুই জন এবং তাদের এক পরিবারের সদস্যের প্রথম করোনা শনাক্ত হয়। প্রথম শনাক্তের দশদিন পর দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

গত বছরের ৮ মার্চ থেকে শুরু হয়ে এখন পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৫০ হাজার ৩৩০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৮৪৬২ জনের। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৩ হাজার ৩ জন। এখনো করোনা আক্রান্ত রয়েছেন ৩৮ হাজার ৮৬৫ জন।

দেশে করোনার এক বছরের মধ্যে গত বছরের জুলাইয়ে সর্বোচ্চ সংক্রমণ ছিল। ২ জুলাই একদিনে ৪ হাজার ১৯ জন আক্রান্ত হন। আর সর্বোচ্চ মৃত্যু ছিল জুন মাসে। ৩০ জুন একদিনে সর্বাধিক মৃত্যুর রেকর্ড হয় ৬৪ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গত এক বছরের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণে দেখা যায়, দেশে একমাত্র আইইডিসিআর ছাড়া করোনা পরীক্ষার জন্য আর কোথাও আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরি ছিল না। বর্তমানে দেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২১৯টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হচ্ছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১১৮টি, জিন-এক্সপার্ট ২৯টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ৭২টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪১ লাখ ৩২ হাজার ২১৩টি।

চলতি বছরের ২৭ জানুয়ারি দেশে টিকাদান কর্মসূচী শুরু করা হয়। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি করোনা টিকার গণ টিকাদান শুরু হয় ৮ ফেব্রুয়ারি।

এ পর্যন্ত দেশে টিকা নিয়েছেন ৩৭ লাখ ৮৯ হাজার ৩৫২ জন। মোট টিকা গ্রহণকারীদের মধ্যে পুরুষ ২৪ লাখ ২০ হাজার ৮৫৩ জন এবং নারী ১৩ লাখ ৬৮ হাজার ৪৯৯ জন। এ পর্যন্ত টিকাগ্রহীতাদের মধ্যে ৮৪৮ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, রাজধানীসহ সারাদেশে টিকা গ্রহণে ইচ্ছুক এমন নিবন্ধনকারীর সর্বমোট সংখ্যা ৫০ লাখ ১৭ হাজার ৮০৪ জন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *