নওগাঁয় ১০৫৬টি বাড়ি নির্মাণ প্রায় সম্পন্ন

সারাবাংলা

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁ জেলায় মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে মোট ১ হাজার ৫৬টি গৃহহীন ও ভুমিহীন পরিবারকে দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ করে দেওয়া পর কর্মসূচি এগিয়ে চলেছে। জেলা প্রশাসকের প্রত্যক্ষ তত্বাবধানে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন দফতর এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে মোট আর্থিক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ১৮ কোটি ৫ লাখ ৭৬ হাজার টাকা। নওগাঁ জেলা প্রশাসক মো. হারুন অর রশীদ বলেছেন, জেলার ১১টি উপজেলায় উপজেলাভিত্তিক দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণের সংখ্যা এবং তার অনুকূলে বরাদ্দকৃত অর্থের পরিমান হচ্ছে আত্রাই উপজেলায় ২ কোটি ৯৯ লাখ ২৫ হাজার টাকা ব্যয়ে ১৭৫টি বাড়ি, রানীনগর উপজেলায় ১ কোটি ৫৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা ব্যয়ে ৯০টি বাড়ি, নওগাঁ সদর উপজেলায় ১ কোটি ৮৮ লাখ ১০ হাজার টাকা ব্যয়ে ১১০টি বাড়ি, বদলগাছি উপজেলায় ৮২ লাখ ৮ হাজার টাকা ব্যয়ে ৪৮টি বাড়ি, সাপাহার উপজেলায় ২ কোটি ৫ লাখ ২০ হাজার টাকা ব্যয়ে ১২০টি বাড়ি, পত্নীতলা উপজেলায় ১ কোটি ৯৪ লাখ ৯৪ হাজার টাকা ব্যয়ে ১১৪টি বাড়ি, মহাদেবপুর উপজেলায় ৫৮ লাখ ১৪ হাজার টাকা ব্যয়ে ৩৪টি বাড়ি, মান্দা উপজেলায় ১ কোটি ৫৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা ব্যয়ে ৯০টি বাড়ি, নিয়ামতপুর উপজেলায় ১ কোটি ২১ লাখ ৪১ হাজার টাকা ব্যয়ে ৭১টি বাড়ি, ধামইরহাট উপজেলায় ২ কোটি ৫৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা ব্যয়ে ১৫০টি বাড়ি এবং পোরশা উপজেলায় ৯২ লাখ ৩৪ হাজার টাকা ব্যয়ে ৫৪টি বাড়ি। বরাদ্দকৃত বাড়ির মধ্যে ডিসেম্বর ২০২০ পর্যন্ত জেলায় মোট ৭শটি বাড়ি নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে এবং ৩৫৬টি বাড়ির নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. হারুন-অর-রশীদ জানান, আগামী ২০ জানুয়ারীর মধ্যেই অবশিষ্ট বাড়িগুলো নির্মাণ কাজ পুরোপুরি সম্পন্ন হবে। ভূমিহীন ও গৃহহীন মানুষদের দুর্যোগ সহনীয় এসব বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মুজিববর্ষের সেরা উপহার। এসব পরিবারগুলো গৃহ এবং ভূমিহীন হিসেবে অত্যন্ত দুর্বিসহ অসহায় জীবন-যাপন করছিলেন। দুই শতাংশ জমি এবং মোটামুটি একটি সুন্দর বাড়ি পেয়ে তারা অত্যন্ত খুশি হয়েছেন। বিগত ৩০ বছরের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যোগ অত্যন্ত প্রশংসিত হয়েছে। জেলা প্রশাসক হিসেবে এই কর্মসূচি বাস্তবায়নের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে পেরে নিজেকেও গৌরবান্বিত বোধ করেন তিনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *