নবীনগরে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে গণধোলাই খেলেন আ’লীগ নেতা

সারাবাংলা

মনির হোসেন, নবীনগর থেকে : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শ্যামগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সহ-দফতর সম্পাদক বানিয়াচং গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নান মিয়ার ছেলে আলমগীর হোসেন(খাজা আলমগীর)কে চাঁদাবাজির অভিযোগে গণধোলাই দেওয়া হয়েছে। সোমবার (২৬/১০)রাত উপজেলার বানিয়াচং মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। মুমর্ষ অবস্থায় খাজা আলমগীর কুমিল্লার একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
সুত্র জানায়, খাজা আলমগীর স্থানীয় আ’লীগ নেতার দাপট খাঁটিয়ে এলাকায় মাদক ব্যবসা ও চাঁদাবাজীসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসীমূলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। গত সোমবার রাতে বানিয়াচং মোড়ে দোকানদার বাইজিদ মোল্লা কাছে ২ লাখ,সবুজ মিয়ার কাছে ৫০ হাজার ও কাজী দুলাল মিয়ার কাছে ২লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। এ সময় এলাকাবাসি তাকে ধরে গণধোলাই দেয়। স্থানীয় কাজী দুলাল মিয়া,কাজী আবদুর রহমান,কাজী নাফিছ ও খোকন মিয়াসহ অনেকেই জানায়, তার অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল, ওই দিন রাতে চাঁদাদাবী করার সময় ভোক্তভোগী এলাকাবাসি তাকে ধরে গণধোলাই দেয়। তার বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।
এ ব্যাপারে খাজা আলমগীর এর ছেলে হাসান জানায়,তার বাবাকে শ্যামগ্রামের(আলগা বাড়ির)এরশাদ মিয়ার নেতৃত্বে ৫/৭ জন সংঘবদ্ধভাবে খাজা আলমগীর কে বানিয়াচং মোড়ে একা পেয়ে লোহার রড ও ছুরা দিয়ে আঘাত করে।
এ ব্যাপারে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) রুহুল আমীন, বলেন, ঘটনাটি শুনেছি এখানো অভিযোগ পাইনি ,অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *