নবীনগরে শোকসভা

সারাবাংলা

নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা এমপি বলেছেন, পল্লীবন্ধু হুসাইন মুহম্মদ এরশাদের ছোটভাই জিএম কাদের পার্টির চেয়ারম্যান হয়েছেন তাতে কারো আপত্তি থাকার কথা নয়। তিনি বলেন আগামীতে আমরা চাই তার কাছে গতিশীল নেতৃত্ব। নবীনগর জাতীয় পার্টির সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরে সাবেক এমপি আরো বলেন, জেলা কমিটি অথবা উপজেলা কমিটি যাই হোক, সকল কমিটি কাগজের মধ্যে সীমাবদ্ধ। দলের চেয়ারম্যান কে উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, কাগজের মধ্যে ফসল না ফেলে, মাঠে ফসল ফেলতে হবে। আজকে নবীনগরে কাজী মামুনের নেতৃত্বে এ শোক সভায় হাজারো মানুষ দল-মত নির্বিশেষে যোগদানের মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয় কাজী মামুনের নেতৃত্বে এখানে জাতীয় পার্টি ঐক্যবদ্ধ।
ব্রাহ্মণবাড়ীয়া নবীনগর উপজেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক, রসুল্লাবাদ ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি খন্দকার আবু জাফরের স্মরণে গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার রসুল্লাবাদ দাখিল মাদ্রাসা মাঠে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এসময় উপজেলা জাতীয় যুব সংহতীর সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলামিনের সঞ্চালনায় জাতীয় পার্টি রসুল্লাবাদ ইউনিয়নের নেতা ক্যাপ্টেন (অব.) জিল্লোর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের) সাবেক সাংসদ জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান এর উপদেষ্টা এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠিত ওই শোক সভায় প্রধান বক্তা ছিলেন এরশাদ ট্রাস্টের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব কাজী মো. মামুনুর রশিদ। এসময় তিনি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বলেন, হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদ কে মানুষ ভালোবাসে দেখেই আজকে এই শোক সভা জনসমুদ্র পরিণত হয়েছে। খন্দকার জাফরের স্মৃতিচারণ করে তিনি আরো বলেন, তার শূন্যতা পূর্ণ হওয়ার নয়। তিনি ছিলেন নবীনগরের জাতীয় পার্টির নয়নের মনি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন রসুল্লাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর,রসুল্লাবাদ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি খন্দকার মনির হোসেন,নবীনগর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হাজী রজ্জব আলী মোল্লা, উপজেলা জাতীয় পার্টি’র সাধারণ সম্পাদক মোছলেম উদ্দীন মৃধা, জেলা জাতীয় যুব সংহতি’র সাবেক সভাপতি সৈয়দ মোকাব্বের হোসেন, পৌর জাতীয় পার্টির সভাপতি ইদন খান, জেলা যুব সংহতির সাবেক সভাপতি শেখ মোহাম্মদ ইয়াছিন, জেলা জাতীয় পার্টি’র সদস্য আনিছ খান, পৌর জাতীয় পার্টি’র সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুছ,জাতীয় পার্টি নেতা ইদ্রীস আলি সহ জেলা-উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ ও মরহুমের পরিবারের সদস্যরা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *