নরসিংদীতে তরুণীকে গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, গ্রেপ্তার ১

সারাবাংলা

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীতে এক কিশোরীকে গণধর্ষণ ও ধর্ষণের সময় ভিডিও ধারণ করার ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে পালিয়ে যাওয়ার সময় শহরের নতুন লঞ্চঘাট এলাকা থেকে ঘটনায় জড়িত রফিকুল ইসলামকে (৫০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী।

গ্রেপ্তার রফিকুল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্ছারামপুর থানার আগানগর এলাকার সাইজ উদ্দিনের ছেলে ও নরসিংদীর ইউএমসি জুটমিলের সাবেক শ্রমিক।

এর আগে গত ৭ অক্টোবর রাত ১০টার দিকে শহরের নাগরিয়াকান্দি ইউএমসি জুটমিলের পাশের এক বাড়িতে এ গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার এক সপ্তাহ পর মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) রাতে সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন নির্যাতিতা ওই কিশোরী।

ওসি বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী জানান, ইউএমসি জুটমিলের পাশের একটি বাড়িতে পরিবারসহ ভাড়া বাসায় থেকে একটি স্পিনিং মিলে শ্রমিকের কাজ করতেন ওই কিশোরী। পাশের কক্ষে পরিবারসহ ভাড়ায় বসবাস করতেন ইউএমসি জুটমিলের সাবেক শ্রমিক রফিকুল ইসলাম। ঘটনার রাতে রফিকুলের পরিবারের সদস্যরা বাসায় না থাকার সুযোগে ওই কিশোরীকে কৌশলে ডেকে নিয়ে যান রফিকুল। এসময় দরজা লাগিয়ে তাকে আটক রেখে ফোন করে আরও দুইজনকে ডেকে আনেন তিনি। পরে রফিকুলসহ তিনজন ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেন ও ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে ছেড়ে দেন।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনার এক সপ্তাহ পর মঙ্গলবার রাতে রফিকুলসহ তিনজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন ওই কিশোরী। বুধবার দুপুরে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নির্যাতিতা ওই কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়। পরে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ রফিকুলকে গ্রেপ্তার করে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *