নিষিদ্ধ হতে পারেন কাভানি

খেলাধুলা

খেলাধুলা ডেস্ক: ভুল শব্দের কারণে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে খেলা এডিনসন কাভানি পেতে পারেন কঠিন শাস্তি; হতে পারেন নিষিদ্ধও।

ইপিএলে নিজেদের নবম ম্যাচে সাউদাম্পটনের বিপক্ষে জয়ের পর এক ইন্সটাগ্রাম পোস্টকে ঘিরে নিষিদ্ধ হতে পারেন কাভানি। গত রোববার রাতে রোমাঞ্চকর এই ম্যাচে শ্বাসরুদ্ধকর জয়ের পর আর নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি এই উরুগুইয়ান।

এক ভক্তের পোস্ট শেয়ার করে ইন্সটাগ্রামে স্প্যানিশ ভাষায় লেখেন ‘ধন্যবাদ নিগ্রো’। ধন্যবাদ পর্যন্তই ভালো ছিলো; কিন্তু শেষে নিগ্রো বলে যেনো নিজের ওপর শনি টেনে এনেছেন তিনি।

এ ঘটনার পরেই নড়েচড়ে বসে ইংল্যান্ড ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এফএ)। তারা জানিয়েছে কাভানির এমন পোস্ট নিয়ে তদন্ত করা হবে। সর্বোচ্চ তিন ম্যাচ শাস্তির মুখোমুখি হতে পারেন চলতি মৌসুমেই প্যারিস থেকে ম্যানচেস্টারে আসা এই ফরোয়ার্ড।

বিবৃতিতে কাভানি বলেন, ‘ম্যাচের পরে যে বার্তাটি আমি পোস্ট করেছি তা আমার এক কাছের বন্ধুর প্রতি ছিলো। ম্যাচ জয়ের পর তার অভিনন্দন বার্তার পরিবর্তে আমি এটি লিখি।

আমি সম্পুর্ণ বর্ণবাদের বিরুদ্ধে। আমি খুব দ্রুতই এটি মুছে দিয়েছি, যাতে এটার ভুল ব্যাখ্যা না হয়। আমি এমন মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাই।’

ম্যানইউও সরাসরি জানিয়ে দিয়েছে তারা বর্ণবাদের বিরুদ্ধে খুব কঠোর। ক্লাবটি এখন এফএর তদন্তের অপেক্ষায় আছে।

সাউদাম্পটনের বিপক্ষে এই ম্যাচে জোড়া গোল করেন কাভানি। এ ছাড়া সতীর্থ ব্রুনো ফার্নান্দেজকে দিয়েও একটি গোল করিয়েছেন। ম্যাচের প্রথমার্ধে দুই গোল খেয়ে পিছিয়ে যায় রেড ডেভিলরা।

৪৪ মিনিটে কাভানি নামার পর থেকেই ম্যাচের রং বদলাতে থাকে। বিরতি থেকে এসে ৬০ মিনিটে কাভানির সহায়তায় ব্রুনোর পা থেকে প্রথম গোল পায় ম্যানইউ। এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি।

৭৪ মিনিটে নিজের প্রথম ও একদম শেষ মুহুর্তে দ্বিতীয় গোল করে প্রতিপক্ষকে নির্বাক করে জয় ছিনিয়ে নায়ক বনে যান কাভানি।
কিন্তু ধন্যবাদ দিতে গিয়ে ভুল শব্দ ব্যবহার করে নায়ক থেকে খল নায়ক হতেও বেশি সময় লাগেনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *