শুক্রবার ২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নীলক্ষেতে বঙ্গবন্ধু রচিত আসল বইয়ের আদলে নকল বই বিক্রি

নভেম্বর ৭, ২০২০

২০টি বই জব্দ : ৪ জনকে জেল-জরিমানা

এসএম দেলোয়ার হোসেন:
রাজধানীর নিউ মার্কেটের নীলক্ষেত এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে জাল সনদসহ মুল্যবান বিভিন্ন বইয়ের নকল (কপিরাইট) বই বিক্রি করে আসছিল একটি চক্র। ইতোমধ্যেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ওই মার্কেটে অভিযান চালিয়ে চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার ও জাল সনদসহ বিভিন্ন ধরণের নকল (কপিরাইট) বইও উদ্ধার করেছে। অধিক মুনাফালোভী ওই চক্রের সদস্যরা আইনের ফাঁক গলিয়ে জামিনে ছাড়া পেয়ে পুরনো সেই পেশায় অবাধে জড়িয়ে পড়ছে। তবে এবারও এর কোন ব্যতীক্রম ঘটেনি। পুস্তক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্যরা এবার নীলক্ষেতের ইসলামীয়া বই মার্কেটে অবাধে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রচিত বইয়ের নকল (কপিরাইট) বিক্রি করে আসছিল। এমন সংবাদে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল নীলক্ষেতের ইসলামীয়া বই মার্কেটে অভিযান চালায়। পুরান ঢাকার বাংলাবাজারের পর বই মার্কেট হিসেবে ব্যাপক পরিচিত সেই নীলক্ষেতের বই মার্কেটে নকল (কপিরাইট) বই বিক্রির সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। এ সময় বঙ্গবন্ধু রচিত আসল বইয়ের আদলে ছাপানো নকল (কপিরাইট) বই বিক্রির অভিযোগে ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরা হচ্ছেন- সৈয়দ রবিউজ্জামান, মো. হামিদ, মো. সাগর ও মো. সোহেল রানা। এ সময় তাদের হেফাজত থেকে বাংলা একাডেমি প্রকাশিত জাতির পিতা বন্ধবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রচিত কারাগারের রোজনামচা, আমার দেখা নয়াচীন ও অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইয়ের পাইরেটেডসহ মোট ২০টি বই জব্দ করা হয়। এরপর নকল (পাইরেটেড) বই বিক্রির অভিযোগে গ্রেফতার ৪ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে জেল-জরিমানা প্রদান করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ শনিবার (৭ নভেম্বর) সকাল ১১টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিএমপির মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. ওয়ালিদ হোসেন।
তিনি জানান, গত ৫ নভেম্বর গোপন সংবাদে বেলা ১২টার দিকে ডিএমপির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সহায়তায় নিউ মার্কেট থানাধীন নীলক্ষেত এলাকার বড় বই বাজার হিসেবে খ্যাত ইসলামীয়া মার্কেটে অভিযান চালায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা রমনা বিভাগের একটি দল। মার্কেটের বেশ কয়েকটি দোকানে অভিযান চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এ সময় বাংলা একাডেমি প্রকাশিত জাতির পিতা বন্ধবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রচিত কারাগারের রোজনামচা, আমার দেখা নয়াচীন ও অসমাপ্ত আত্মজীবনী বইয়ের পাইরেটেড মোট ২০টি কপি জব্দ করা হয়। এসব ঘটনায় জড়িত থাকার দায়ে ৪ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর ডিএমপির ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের প্রত্যেককে বিভিন্ন মেয়াদে জেল-জরিমানা করা হয়।
ডিএমপির (মিডিয়া) ডিসি মো. ওয়ালিদ হোসেন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রচিত এই ৩টি বই জাতির জন্য একটি ঐতিহাসিক দলিল। এই বইগুলো আমরা অত্যন্ত শ্রদ্ধার সাথে দেখি। জাতির ইতিহাসের জন্য বই ৩টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা বাংলা একাডেমি হতে চিঠির মাধ্যমে জানতে পারি, এই বইগুলো পাইরেটেড হচ্ছে। এরপর আমরা তথ্য নিয়ে জানতে পারি, নিউমার্কেটের নীলক্ষেত এলাকার দুইটি বইয়ের মার্কেটে বইগুলো পাইরেটেড হচ্ছে। এই তথ্যের ভিত্তিতে গোয়েন্দা পুলিশ উল্লেখিত মার্কেটে অভিযান চালায়। তিনি আরও বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ মোতাবেক ভ্রাম্যমাণ আদালত পাইরেটেড বই বিক্রির অভিযোগে নীলক্ষেতের ইসলামীয়া মার্কেটের বই বাজার প্রকাশনীর স্বত্তাধিকারী সৈয়দ রবিউজ্জামানকে ১ বছর ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে এবং উক্ত দোকান হতে ১৫টি কারাগারের রোজনামচা বইয়ের পাইরেটেড কপি জব্দ করা হয়। ইসলামীয়া মার্কেটের চাঁদপুর বুক সেন্টারের স্বত্তাধিকারী মো. হামিদকে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে এবং উক্ত দোকান থেকে ১টি কারাগারের রোজনামচা, ১টি অসমাপ্ত আত্মজীবনী ও ১টি আমার দেখা নয়াচীন বইয়ের পাইরেটেড কপি জব্দ করা হয়। জিসান-১ বুক সেন্টার দোকান হতে ১টি অসমাপ্ত আত্মজীবনী পাইরেটেড কপি জব্দ ও পাইরেটেড বিক্রি করার দায়ে মো. সাগরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও জিসান-২ বুক সেন্টার দোকান হতে ১টি কারাগারের রোজনামচা বইয়ের পাইরেটেড কপি জব্দ ও পাইরেটেড বিক্রি করার দায়ে মো. সোহেল রানাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। দণ্ডপ্রাপ্তদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গণমাধ্যম শাখার উপ-কমিশনার মো. ওয়ালিদ হোসেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
সর্বশেষ

পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

ঢাকা প্রতিদিন অনলাইন || বৃহস্পতিবার (১৯ মে) দুপুরে রাজধানীর বংশাল আলুবাজার এলাকায় পুকুরে গোসল করতে নেমে পানিতে ডুবে ইয়াসিন (৮)

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031