নেপালে ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির নতুন দিগন্তের উন্মোচন

অর্থ-বাণিজ্য কর্পোরেট কর্ণার

বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত বনশীধর মিশ্রর উপস্থিতিতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এবং নেপালের মনমোহন মেমোরিয়াল ইনস্টিটিউট অব হেলথ সায়েন্সেসের মধ্যে এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। গত মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) আশুলিয়ায় ড্যাফোডিল স্মার্ট সিটির ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইন্টারন্যাশনাল সম্মেলন কক্ষে এ সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠিত হয়। সমঝোতা চুক্তিতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. ইঞ্জিনিয়ার একেএম ফজলুল হক এবং মনমোহন মেমোরিয়াল ইনস্টিটিউট অব হেলথ সায়েন্সেসের ভাইস চেয়ারপার্সন জিয়ান প্রকাশ শর্মা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্বাক্ষর করেন। এই সমঝোতার ফলে নেপালে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হলো। এখন থেকে প্রতিষ্ঠান দুটি জনস্বাস্থ্য ও ওষুধশিল্প নিয়ে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করবে। এছাড়া দুটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শিক্ষক-শিক্ষার্থী বিনিময় প্রোগ্রাম, গবেষণা, সামার ও উইনটার প্রোগ্রাম, ইডাস্ট্রি পরিদর্শন ইত্যাদি অনুষ্ঠিত হবে।
সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন নেপাল রাষ্ট্রদূতের স্ত্রী দূর্গা মিশ্র, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মাহবুব উল হক মজুমদার, কোষাধক্ষ্য মমিনুল হক মজুমদার, অ্যালাইড হেলথ সায়েন্সেস অনুষদের সহকারী ডিন ড. বেল্লাল হোসেন, ফার্মেসি বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. মুনিরউদ্দিন আহমেদ, এনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স অ্যান্ড ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রধান ড. কামাল পাশা, স্টুডেন্ট অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক সৈয়দ মিজানুর রহমান প্রমুখ।
সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠান শেষে নেপাল রাষ্ট্রদূত অতিথিবহর নিয়ে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সবুজ ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেন এবং মুগ্ধতা প্রকাশ করেন।   -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *