নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে এগিয়ে ফজলুর রহমান

সারাবাংলা

এমএ কাইয়ুম, শ্রীনগর থেকে
দ্বিতীয় ধাপে ইউপি নির্বাচন উপলক্ষ্যে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার ১২নং আটপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে সবচেয়ে এগিয়ে আওয়ামী লীগের দুর্দিনের পরীক্ষিত সৈনিক ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুর রহমান। তিনি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ২নং ওয়ার্ড সদস্য ও আটপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি। গত ২০১৪ সালে দলীয় প্রতীকে নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন আওয়ামী লীগ নেতা বিল্লাল হোসেন এবং আনারস প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন আইয়ুব আলী খান। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতা বিল্লাল হোসেনের জনপ্রিয়তা না থাকায় এবং চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে বিভিন্ন কাজে অনিয়ম থাকায় ইউনিয়নের লোকজন আনারস প্রতিকের প্রার্থীকে ভোট দেওয়ায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হেরে যায় এবং আনারস প্রতিকের জয়ী হয়। কিন্তু ওই সময় বর্তমান নৌকা প্রত্যাশী চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফজলুর রহমানের ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের কোনো পদ পদবি না থাকায় তিনি নৌকার বিদ্রোহী না করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে সামান্য ভোটের ব্যবধানে হেরে গেলেও তার জনপ্রিয়তা এখনও অটুট রয়েছে।
গত ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আটপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের অন্য নেতাকর্মীরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী তোফাজ্জল হোসেন এর পক্ষে কাজ করেন। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ শ্রীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী তোফাজ্জল হোসেনের কাছে ফজলুর রহমানের গ্রহণযোগ্যতা অনেক গুণ বেড়ে যায়। এই সব দিকে বিবেচনা করে দ্বিতীয় ধাপে ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন নির্বাচনে আটপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুর রহমান সবদিক থেকে এগিয়ে। আটপাড়া ইউনিয়ন ব্যাপী জরিপে দেখা যায়, ১নং ওয়ার্ডের পূর্ব দেউলভোগ, দতপাড়া, পূর্বপাড়, পশ্চিমপাড়, ২নং ওয়ার্ডের কল্লিগাঁও, ৩নং ওয়ার্ডের তিনগাঁও, ৪নং ওয়ার্ডের দেওপাড়া, নন্দিপাড়া, ৫নং ওয়ার্ডের পশ্চিম আটপাড়া, ৬নং ওয়ার্ডের পূর্ব আটপাড়া, ৭নং ওয়ার্ডের বাড়ৈগাঁও, ৮নং ওয়ার্ডের তারাটিয়া এবং ৯নং ওয়ার্ডে হাসারগাঁও গ্রামে জনমত জরিপে সবচেয়ে এগিয়ে নৌকা মনোয়ন প্রত্যাশী আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুর রহমান।
ফজলুর রহমান ২নং কল্লিগাঁও গ্রামের বাসিন্দা এবং বাংলাদেশে স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান দর্জিবাড়ী ব্র্যান্ডের মালিক। ছাত্র জীবন থেকেই তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে মনে প্রাণে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি শুরু করেন। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে তিনি ওতপ্রোতভাবে জড়িত থাকার পাশাপাশি জনগণের সেবায় নিয়োজিত থাকার জন্য সর্বদা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
দলীয় মনোনয়নের ব্যপারে ফজলুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সঠিক সিদ্ধান্তই নেবেন। যোগ্য ব্যক্তি এবং পরীক্ষিত কর্মীদেরই মূল্যায়নের মাধ্যমে মনোনয়ন দেবেন তিনি। তিনি আরও বলেন, করোনাকালীন সময় থেকে আমি নিজের এবং পরিবারের কথা চিন্তা না করে কর্মহীন হয়ে পড়া অনেক অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। এ ছাড়া বিভিন্ন সময়ে আমার সাধ্যমত সহযোগিতা করে থাকি। আমি সব সময় দরিদ্র মানুষের পাশে থেকেছি। অসহায় দরিদ্র জনগণের পাশে থাকা আমার অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। বলতে পারেন এটা আমার নেশা। এলাকার জনগণ আমাকে নির্বাচন করতে উৎসাহ দিচ্ছেন। তাদের আশা পূরণের জন্য আমি নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী। আমি শতভাগ বিশ্বাসী দল আমাকে মনোনয়ন দেবে।
নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করে জয়ী হওয়ার ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অংশীদার হয়ে আটপাড়া ইউনিয়নের সেবা নিশ্চিত করতে চান। ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণের কাছে দোয়া, সমর্থন ও ভালবাসা চেয়েছেন দর্জিবাড়ি প্রতিষ্ঠানের মালিক ফজলুর রহমান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *