পটুয়াখালীতে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ১

সারাবাংলা

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : পটুয়াখালী জেলার দুমকি উপজেলার শ্রীরামপুর ৩নং ওয়ার্ড নিবাসী রামরঞ্জন শীল (৫৫) এর সঙ্গে একই এলাকার মানবিন্দু চন্দ্র শীল গংদের জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জেরে রামরঞ্জন শীলের ছেলে গ্রামীন ব্যাংকের ফিল্ড অফিসার অসিম চন্দ্র শীল কে অফিস থেকে বাড়ি ফেরার পথে একা পেয়ে তার উপর হামলা করে পিটিয়ে মারাত্মক রক্তাক্ত জখম করে। গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় শ্রীরামপুর পাকা রাস্তার উপর এই ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ভিকটিমের বাবা রামরঞ্জন শীল বাদী হয়ে দুমকি থানায় মানবিন্দু চন্দ্র শীল (২৮), নিত্যানন্দ চন্দ্র শীল (৪৫), মালতী রানী (৪০), পংকজ চন্দ্র শীল (৩৫) সর্ব সাং শ্রীরামপুর সহ অজ্ঞাতনামা ২/৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-৩, তারিখ-০৮.০১.২১ইং। পুলিশ মামলার ১নং আসামি মানবিন্দু চন্দ্র শীলকে গ্রেফতার করেছে।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণীতে জানা যায়, আসামিরা ঘটনার দিন পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক অসিম চন্দ্র শীল তার অফিস গ্রামীন ব্যাংক থেকে ফেরার পথে শ্রীরামপুর সাকিনে মামলার ২নং সাক্ষী সুধীর চন্দ্র শীলের বসত ঘরের সামনে পাকা রাস্তার উপর তার পথরোধ করে দেশিয় অস্ত্র নিয়ে আঘাত করে। মারামারি একপর্যায়ে মামলার ১নং আসামি অসিম চন্দ্র শীলের মাথা লক্ষ্য করে লোহার রড দিয়ে বারি দিলে সে সরে গেলে বারি মুখের উপর লেগে দাঁত ভাঙা রক্তাক্ত জখম হয়। তখন অসিমের পকেট থেকে ব্যাংকের এক লাখ পাঁচ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এসময় তার ডাকচিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে আসামিরা তাকে খুন জখমের হুমকি দিয়ে বীরদর্পে চলে যায়। অসিমের অবস্থার অবনতি দেখে স্থানীয়রা তাকে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করেন। বর্তমানে ভিকটিম অসিম বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *