পদ্মা ব্যাংক-ডেলমর্গান অ্যান্ড কোম্পানির সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

অর্থ-বাণিজ্য কর্পোরেট কর্ণার

পদ্মা ব্যাংকে এবার আসছে বড় অঙ্কের বিদেশি বিনিয়োগ। এ সংখ্যাটা হতে পারে ৭০ কোটি ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় যা পাঁচ হাজার ৯০০ কোটি টাকা। বিপুল এ বিনিয়োগ আনতে মধ্যস্থতা করবে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক খ্যাতনামা বিনিয়োগ ব্যাংক ডেলমর্গান অ্যান্ড কোম্পানি। এ লক্ষ্যে গত ২ সেপ্টেম্বর পদ্মা ব্যাংক যুক্তরাষ্ট্রের ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক ডেলমর্গান অ্যান্ড কোম্পানির সঙ্গে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর করে। এতে পদ্মা ব্যাংকের পক্ষে এমডি ও সিইও এহসান খসরু এবং ডেলমর্গানের পক্ষে প্রেসিডেন্ট ও সিইও নিল মরগানবেসার স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফাত এবং ডেলমর্গানের চেয়ারম্যান রব ডেলগাডো উপস্থিত ছিলেন।
পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এহসান খসরু বলেন, আগামী ৪ থেকে ৬ মাসের মধ্যেই এ বিনিয়োগ আসবে। বিনিয়োগের মধ্যে দুই হাজার ৪০০ কোটি টাকা আসবে ইক্যুইটি বিনিয়োগ হিসেবে। এছাড়া বাকি টাকা আসবে ঋণ হিসেবে। পদ্মা ব্যাংকের চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফাত এই এমওইউ স্বাক্ষরকে বাংলাদেশের আর্থিক খাতের ইতিহাসে এক নতুন অধ্যায় হিসেবে অভিহিত করেন। তিনি বলেন, পদ্মা ব্যাংক ‘এম অ্যান্ড এ’ (মার্জার অ্যান্ড অ্যাকুইজেশন) লেনদেনের আওতায় আন্তর্জাতিক আর্থিক ক্ষেত্রে প্রবেশের সুযোগ তৈরি করেছে। ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোর গতিশীলতা বাড়ানোর লক্ষ্যে বিশ্বব্যাপী বিপুলসংখ্যক ‘এম অ্যান্ড এ’ চুক্তি প্রায়ই হয়। অন্যদিকে ডেলমর্গান অ্যান্ড কোম্পানির চেয়ারম্যান রব ডেলগাডো বলেন, ‘আমরা পদ্মা ব্যাংকের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত। এ ব্যাংক বিদেশি বিনিয়োগের যে সুযোগ সৃষ্টি করেছে, আমরা সেটি এগিয়ে নিতে পারব বলে আশা করছি।’
প্রেসিডেন্ট ও সিইও নিল মরগানবেসার বলেন, ‘আমরা পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা টিমের মান এবং ভিশন দেখে মুগ্ধ হয়েছি। আগ্রহী বিনিয়োগকারীদের কাছে পদ্মা ব্যাংককে তুলে ধরার ক্ষেত্রে আমরা আমাদের অভিজ্ঞতা এবং বিশ্বব্যাপী যোগাযোগ কাজে লাগানোর বিষয়ে অত্যন্ত উৎসাহী।’
ডেলমর্গানের এমডি সামির আসাফ বলেন, ‘বাংলাদেশ এমন একটি অর্থনীতি যা বিশ্ব সম্প্রতি আবিষ্কার করছে। দুর্দান্ত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং দ্রুত বর্ধনশীল আর্থিক খাতের কারণে অসামান্য সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। ডেলমর্গানের বাংলাদেশ অপারেশন প্রধান হিসেবে আমি দেশটির এই প্রবৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে পেরে গর্বিত এবং উচ্ছ্বসিত।’
ডেলমর্গান অ্যান্ড কোম্পানি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত একটি ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক এবং আর্থিক খাতের পরামর্শদাতা কোম্পানি, যার সদরদপ্তর যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সান্তা মনিকা। তিন দশকের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন এ কোম্পানি ৩০০ বিলিয়ন (৩০ হাজার কোটি) ডলারের লেনদেন সফলভাবে সম্পন্ন করেছে। ডেলমর্গানের কর্মকর্তারা বিশ্বব্যাপী কোম্পানি, প্রতিষ্ঠান, সরকার এবং ব্যক্তি পর্যায়ে বিশ্বমানের আর্থিক পরামর্শ এবং সহায়তা দেয়।
অন্যদিকে, করোনাভাইরাসের মধ্যেও খেলাপি ঋণ আদায়ে পদ্মা ব্যাংকের সাফল্য অর্থনীতির দুর্দিনে অনন্য নজির দেখিয়েছে বেসরকারি পদ্মা ব্যাংক লিমিটেড। মহামারির মধ্যে যখন ব্যাংক খাতের সার্বিক খেলাপি ঋণ মার্চ থেকে জুন পর্যন্ত চার হাজার ৬২৮ কোটি টাকা বেড়েছে, তখন পদ্মা ব্যাংক উল্টো ৫৮ কোটি টাকা ঋণ আদায় করেছে। জুন শেষে ব্যাংকটির মোট ঋণ ছয় হাজার ৭০৮ কোটি টাকা। এর মধ্যে খেলাপি তিন হাজার ৫১৯ কোটি টাকা, যা ঋণের ৬১ দশমিক ৫৫ শতাংশ। এই ঋণের প্রায় সবই এই ব্যাংকের পূর্বসূরি ফারমার্স ব্যাংকের। ব্যাংকটি পুনর্গঠন করে পদ্মা ব্যাংক নামে যাত্রা শুরু করার পর থেকে অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। মার্চে ব্যাংকটির ঋণ ছিল পাঁচ হাজার ৬৫৩ কোটি টাকা। তখন খেলাপি ছিল তিন হাজার ৫৭৭ কোটি টাকা, যা মোট ঋণের ৬৩ দশমিক ২৭ শতাংশ ছিল। তিন মাসে খেলাপি ঋণ কমেছে এক দশমিক ৭২ শতাংশ।

-বিজ্ঞপ্তি

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *