পনের বছর পর পাকিস্তান সফরে যাবে ইংল্যান্ড

খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক : গত কয়েকবছরে বিদেশী দলগুলো পাকিস্তান সফর করে যাওয়ায় নিরাপত্তার বিষয়ে খানিকটা আত্মবিশ্বাস বেড়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি)। তাদের মূল চ্যালেঞ্জ এখন ইংল্যান্ডের জন্য সঠিক জৈব নিরাপত্তা বলয় তৈরি করা। পাকিস্তানের করোনা নিরাপত্তা ব্যবস্থা কতটা মজবুত তা পর্যবেক্ষণ করতে চিকিৎসকদের একটি দল সেখানে পাঠাতে পারে ইসিবি। সাদা বলের সংক্ষিপ্ত সিরিজ খেলতে পাকিস্তানে যাওয়ার সম্ভাবনা জেগেছে ইংল্যান্ডের। আসছে বছরের জানুয়ারি বা ফেব্রুয়ারিতে সিরিজটি হতে পারে বলে পিসিবি সঙ্গে আলোচনা শেষে জানিয়েছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।

গত ৮ অক্টোবর ক্রিকইনফো জানায়, তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলতে ইংল্যান্ডকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে পাকিস্তান। সিরিজটি খেলার ব্যাপারে ইতিবাচক সাড়াও দিয়েছে ইসিবি। সব ঠিক থাকলে ২০০৫ সালের পর পাকিস্তানে যাবেন ইয়ন মরগ্যানরা।

২০২২ সালে পাকিস্তানে গিয়ে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলার কথা থাকলেও তার আগেই আমন্ত্রণ পাঠায় পিসিবি। জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে ইংলিশ ক্রিকেটাররা। পরে ভারতের মাটিতে আছে টেস্ট ও সীমিত-ওভারের ক্রিকেট সিরিজ। দুই সফরের আগে বা মাঝামাঝিতে পাকিস্তানে গিয়ে খেলাটা কাজে লাগতে পারে বিবেচনায় সাড়া দিয়েছে ইসিবি।

পাকিস্তানে গিয়ে খেলার ব্যাপারে ইসিবির কিছুটা কৃতজ্ঞতা বোধও কাজ করছে। করোনার সময় নিজ মাটিতে সিরিজ আয়োজনের ব্যাপারে যেকয়টি দেশকে পাশে পেয়েছে ইংল্যান্ড, পাকিস্তান তাদের একটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, আয়ারল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া- সফর করে যাওয়ায় করোনায় তাদের ক্ষয়ক্ষতি কিছুটা কমিয়ে আনতে পেরেছে বোর্ডটি। সেই দায় থেকে ১৫ বছর পর ইংল্যান্ডের পাকিস্তান সফর, অসম্ভব কিছু নয়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *