পরকীয়ার গুঞ্জন নায়িকা নুসরাতের!

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক : স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না কলকাতার নায়িকা নুসরাত জাহানের।ইনস্টাগ্রাম পেজে চোখ রাখলে এমনটিই মনে হয়, গত ১৯ জুন শেষবার তিনি স্বামী নিখিল জৈনর সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন। এরপর কেবলমাত্র দুর্গাপুজোর সময় তাদের একসঙ্গেই দেখা গিয়েছিল।

সেই সম্পর্ক ভালো না যাওয়ার কারণ হিসেবে গুঞ্জন রটেছে অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে নুসরাতের পরকীয়া।

টলিপাড়ায় জোর গুঞ্জন, ‘SOS কলকাতা’ ছবির শুটিংয়ের সময়ই বন্ধুত্ব তৈরি হয়েছে নুসরাত-যশের। তাদের সেই বন্ধুত্ব নাকি ক্রমেই গভীরতর হচ্ছে। এই দুই তারকার মাখোমাখো সম্পর্কটা অনেকেরই চোখে লেগেছে। বিষয়টি নজরে এসেছে নুসরাতের স্বামী নিখিলেরও। সেসব নিয়ে এই ছবির সাকসেস পার্টিতে স্বামীর সঙ্গে মনকষাকষি হয়েছিল নুসরাতের।

টলিপাড়ায় আরও আলোচনা, যশের সঙ্গে গোপন সম্পর্কে মেতেছেন নুসরাত। সেই জেরে যেকোনো মুহূর্তে ভেঙে যেতে পারে অভিনেত্রীর সংসার। স্বামী নিখিলের সঙ্গে নাকি ক্রমেই দূরত্ব বাড়ছে তার! আর কাছে আসছেন অভিনেতা যশ।

আজকাল তাদেরকে সবখানেই একসঙ্গে দেখা যাচ্ছে। সম্প্রতি দুজন ঘুরতে গিয়েছেন রাজস্থানে। আজমির শরীফেও দুজনকে একসঙ্গে দেখা গেছে। সেখানে ঘনিষ্ঠভাবেই দুজন ছবি ও ভিডিওতে ধরা দিয়েছেন।

এমনটা দেখে অনুরাগীদের মনে জাগছে প্রশ্ন, তবে কি নতুন অধ্যায় শুরু করতে যাচ্ছেন রিল লাইফের এই জুটি?

এদিকে পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান পত্রিকাসহ বেশ কিছু গণমাধ্যমই জানিয়েছে, গেল থার্টি ফাস্ট নাইটে একাই রাজস্থানে সময় কাটিয়েছেন নুসরাত। অন্যদিকে কলকাতায় একাকী থার্টি ফাস্ট নাইট উদযাপন করেছেন নিখিল জৈন।

যদিও যশের সঙ্গে প্রেম নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি নুসরাতের। পুরো বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন তিনি। চুপচাপ সম্পর্কটা উপভোগ করছেন যশও। তবে তাদের ইনস্টাগ্রামে এ নিয়ে চলছে অনেক মাতামাতি। সেখানে অংশ নিয়েছেন নুসরাতের বান্ধবী মিমি চক্রবর্তীও। একটি মন্তব্যে তিনিও নুসরাতকে নিয়ে মজা করে জানতে চেয়েছেন, কবে থেকে তিনি যশের এত কাছের মানুষ হয়ে উঠলেন। তার সেই মন্তব্যও অনেক রহস্যের খোরাক দিয়েছে নুসরাত-যশের সম্পর্ক নিয়ে।

বিষয়টি নিয়ে নুসরাত বা যশ মুখ না খুললে নিশ্চিত হয়ে বলা মুশকিল দুই তারকার পরকীয়া ও নুসরাতের বিচ্ছেদের খবর সব নিছকই গুজব কি না! সত্যিটা জানার অপেক্ষায় সবাই।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *