পাইকগাছার ১০ ইউপিতে শান্তিপূর্ণ ভোট আওয়ামী লীগে ৮ ॥ স্বতন্ত্র ২

সারাবাংলা

শেখ সেকেন্দার আলী, পাইকগাছা থেকে
কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা আর বৃষ্টি উপেক্ষা করে জলেনর মধ্যে দাঁড়িয়ে উৎসাহ উদ্দীপনার মাধ্যমে খুলনার পাইকগাছা উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। গত সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ৯টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিয়নগুলো হচ্ছেÑ কপিলমুনি, লতা, দেলুটি, সোলাদানা, লস্কর, গদাইপুর, রাড়ুলী, চাঁদখালী ও গড়ইখালী। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কামাল উদ্দীন আহমেদ জানান, ৯টি ইউনিয়নে ৪০ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ সংরক্ষিত নারী সদস্য এবং সাধারণ সদস্যসহ মোট ৬০১ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছে। ৯টি ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮৭ হাজার ৬২০ জন। কেন্দ্রের সংখ্যা ছিল ৯২ ও বুথ ৫৩৮টি। পাইকগাছা উপজেলার ১০ ইউপির ৮টিতে নৌকা ও দুটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর জয়। ২নং কপিলমুনি ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী কওসার আলী জোয়াদ্দার তৃতীয় বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ৩নং লতা ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী কাজল কান্তি বিশ্বাস নির্বাচিত হয়েছেন। ৪নং দেলুটি ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী রিপন কুমার মন্ডল টানা তৃতীয়বারের মত নির্বাচিত হয়েছেন। ৫নং সোলাদানা ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আব্দুল মান্নান গাজী নির্বাচিত হয়েছেন। ৬নং লস্কর ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী কে এম আরিফুজ্জামান তুহিন টানা তৃতীয় বারের মত নির্বাচিত হয়েছেন। ৭নং গদাইপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী শেখ জিয়াদুল ইসলাম নির্বাচিত হয়েছেন। ৮নং রাড়ুলী ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ নির্বাচিত হয়েছেন। ৯নং চাঁদখালী ইউনিয়নে চশমা স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহজাদা আবু ইলিয়াস নির্বাচিত হয়েছেন। ১০নং গড়ইখালী ইউনিয়নে স্বতন্ত্র আনারস প্রতিকের প্রার্থী আব্দুস ছালাম কেরু নির্বাচিত হয়েছেন। উল্লেখ্য, ১নং হরিঢালী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থীর মৃত্যুতে ভোট স্থগিত রয়েছে। পাইকগাছা উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের বিচ্ছিন্ন ঘটনা। উপজেলার চাঁদখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের কাটাবুনিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকে জাল ভোট দেয়ার অভিযোগে নৌকা ও চশমা প্রতীকের কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ বাধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিতে পুলিশ এক রাউন্ড ফাঁকাগুলি করে। এঘটনায় নাঈম ইসলাম নামে এক যুবককে পুলিশ আটক করেছে। গদাইপুর, সোলাদানা, লতা ও রাড়ুলী ইউনিয়নের অধিকাংশ কেন্দ্র থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেয়ার অভিযোগ করেছেন প্রার্থীরা। গদাইপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী গাজী জুনায়েদুর রহমান প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর কর্মীদের দ্বারা অতর্কিত হামলার শিকার হয়েছেন। কপিলমুনি ইউনিয়ন জাল ভোট দেওয়ার সময় পুলিশ একজনকে আটক করে। এদিকে কপিলমুনি, দেলুটি, লস্কর, গড়ইখালী ইউনিয়নে অনেকটা শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *