পীরগাছায় ঝুঁকিপূর্ণ সাঁকো দিয়ে পারাপার হচ্ছে কয়েক হাজার মানুষ

সারাবাংলা

একরামুল ইসলাম, পীরগাছা (রংপুর) থেকে : রংপুরের পীরগাছায় ছোট ঝিনিয়া (ধনীর বাজার) সংলগ্ন নদীতে একটি ব্রিজের অভাবে ভোগান্তিতে ভূগছে কয়েক হাজার মানুষ। ব্রিজ না থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে দুই পাড়ের মানুষকে। নদী পারাপারের জন্য স্থানীয় লোকজন নিজেদের উদ্যোগে বাঁশ দিয়ে সাঁকো তৈরি করলেও তা ভেঙে যায়। আবার নতুনভাবে সাঁকোটি তৈরি করে কোনো রকম চলাফেরা করছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নদীটির এক পাড়ে রয়েছে কিসামত ঝিনিয়া (ধনীর বাজার) উচ্চ বিদ্যালয়, কিসামত ঝিনিয়া দাখিল মাদরাসা ও ছোট ঝিনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ আরও অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিনই পারাপার হতে হয় কোমলমতি শিক্ষার্থীদের। বাঁশের সাঁকোটিতে পারাপারের সময় দুলে যাওয়ায়, বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে দুই পাড়ের মানুষের। ইতোপূর্বে ওই সাঁকোটিতে পারাপারের সময় অনেকেই দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। ওই গ্রামের বাসিন্দা ওয়াহেদ আলী বলেন, চেয়ারম্যান-মেম্বারা শুধু মাপযোগ নিয়ে যায় কিন্তু ব্রিজ হয় না। এখানে একটি ব্রিজ হউক। এলাকার লোকজনের এটা দীর্ঘদিনের দাবি। কারণ ওই সাঁকো দিয়ে প্রতিদিনই কয়েক হাজার মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করে। ৩নং ইটাকুমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল কাদের প্রধান জানান, আমরা ওই সাঁকোতে একটি ব্রিজ করার জন্য মাপযোগ ও কাগজপত্র ইতোমধ্যে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার মাধ্যমে ঢাকায় পাঠিয়েছি। এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মো. মনিরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ওই সাঁকোটি আমি দেখেছি। সাঁকোটির মাপযোগ ও কাগজপত্র ঢাকায় পাঠিয়েছি। বরাদ্দ পেলে ব্্িরজের কাজ শুরু হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *