পুলিশের সামনেই বোমা ফাটিয়ে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাই

সারাবাংলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
যশোরে টহল পুলিশের সামনে প্রকাশ্য দিবালোকে একটি ব্যাংকের সামনে বোমা ফাটিয়ে ও ছুরিকাহত করে ১৭ লাখ টাকা ছিনতাই হয়েছে। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার দিকে শহরের ইউসিবিএল ব্যাংকের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে কোতয়ালী থানার দুরত্ব মাত্র ১৫০ গজ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম জানান, শহরের আগমনী মোটরসের স্বত্ত্বাধিকারী ইকবাল হোসেনের ছোট ভাই এনামুল হক (২৫) দুপুরে টাকা জমা দেয়ার জন্য মোটরসাইকেলে ব্যাংকে আসেন। ইমন নামে অপর একজন তার সঙ্গে ছিলো। তারা ব্যাংকের সামনে আসার সঙ্গে সঙ্গে টাকার ব্যাগ বহনকারী এনামুলের ওপর হামলা চালায় ছিনতাইকারীরা। তারা ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করলে তিনি বাধা দেন। এসময় তার দুই হাতে, বুক ও পেটে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়া হয়। যাওয়ার সময় একটি বোমার বিষ্ফোরণ ঘটায় ছিনতাইকারীরা। বোমার স্প্রিন্টারে ব্যাংকের এটিএম বুথ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পরে, স্থানীয়রা জখম হওয়া এনামুলকে দ্রুত যশোর জেনারেল হাসপাতালে নেন।

চিকিৎসাধীন এনামুল জানান, তিনি প্রায় ১৭ লাখ টাকা ব্যাংকে জমা দিতে যাচ্ছিলেন। ব্যাংকের সামনে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ৩ ছিনতাইকারী তার ওপর হামলা চালায়।

এদিকে, ইউসিবি ব্যাংকের সিকিউরিটি গার্ড মোস্তফা কামালসহ আশপাশের দোকান মালিকরা জানান, ঘটনার সময় মাত্র ২০ গজ দুরে জেস টাওয়ারের সামনে কোতয়ালী থানার একটি টহল পুলিশের গাড়ি দাঁড়িয়ে ছিলো। এসময় পুলিশের কোন সদস্য গাড়ি থেকে নেমে আসেনি।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তারেক শামস জানান, হাত, বুক ও পেটে ছুরিকাহত এনামুলের অবস্থা গুরুতর। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

এদিকে, যশোর কোতয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) তাসমীম আহমেদ, পুলিশ ও র‌্যাব কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাস্থলের চারদিকে একাধিক সিসি ক্যামেরা রয়েছে। ওই ক্যামেরাগুলো থেকে ভিডিও চিত্র সংগ্রহ করা হচ্ছে। পুলিশের একাধিক দল ছিনতাইকারী আটকে অভিযান শুরু করেছে বলে জানায় পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *