পেঁয়াজ সংরক্ষণে সহযোগিতা পাওয়া যাবে নেদারল্যান্ডের : কৃষিমন্ত্রী

জাতীয়

ডেস্ক রিপোর্ট: কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, দেশে পেঁয়াজ সংরক্ষণ ও সংরক্ষণকাল বাড়াতে ডাচ প্রযুক্তি ও দক্ষতাকে কাজে লাগানো হবে। আজ শনিবার (১৩ নভেম্বর )কৃষি মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, নেদারল্যান্ডসে সফররত কৃষিমন্ত্রী শুক্রবার দেশটির শীর্ষস্থানীয় পেঁয়াজ উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাত, প্যাকেজিং ও রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান ওয়াটারম্যান ওনিয়ন্স পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী এ কথা বলেন। ওয়াটারম্যান ওনিয়ন্স সারা বিশ্বে বছরে প্রায় ১ লাখ ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ রপ্তানি ও বিপণন করে।

বাংলাদেশ সরকার পেঁয়াজে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের জন্য কাজ করছে বলে প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তাদের জানান কৃষিমন্ত্রী। তিনি সেখান থেকে পেঁয়াজের উন্নত জাত, উৎপাদন ও সংরক্ষণকাল বৃদ্ধির প্রযুক্তি আনতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। বাংলাদেশে সেপ্টেম্বর-ডিসেম্বর মাসে পেঁয়াজের ঘাটতি দেখা দিলে নেদারল্যান্ডস থেকে আমদানির বিষয়টিও বিবেচনা করা যেতে পারে বলে আলোচনা হয়। সেপ্টেম্বরে নেদারল্যান্ডসে পেঁয়াজ সংগ্রহ হয়।

পরে কৃষিমন্ত্রী দেশটির আন্দিকে অবস্থিত শাক-সবজি প্রক্রিয়াকরণ, স্টোরেজ সরঞ্জাম ও কৃষি যন্ত্র নির্মাতা-বিপণন প্রতিষ্ঠান ‘অলরাউন্ড ভেজিটেবল প্রসেসিং’ পরিদর্শন করেন। এ সময় মন্ত্রী বাংলাদেশে যৌথ উদ্যোগে এ ধরণের শিল্প স্থাপনের আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে বিনিয়োগের অনুকূল পরিবেশ ও সব সুবিধা আছে। এ সব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকার প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করবে।’

কৃষিমন্ত্রী ইমেলুর্ডে অ্যাগ্রোফুড ক্লাস্টারে আলুর উন্নত জাত, উৎপাদন, প্রসেস ও সংরক্ষণ প্রযুক্তি পরিদর্শন করেন। আলু উৎপাদনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন কোম্পানির প্রতিনিধিদের সঙ্গে তিনি মতবিনিময় করেন। দেশে রপ্তানিযোগ্য আলুর উৎপাদন এবং আলু সংরক্ষণে প্রযুক্তিগত সহায়তা কামনা করেন তিনি।

 

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *