প্রতিক্ষার পঁয়ত্রিশ বছর : মির্জাগঞ্জে সংস্কারহীন সেতু

সারাদেশে

রনি খান, মির্জাগঞ্জ থেকে : পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার মজিদবাড়িয়া ইউনিয়নের ভয়াং-চান্দুখালি সড়কের সুলতানাবাদ গ্রামের পায়রা নদীতে বয়ে যাওয়া পাচকরি খালের উপর দিয়ে প্রায় ৩৫ বছর আগে নির্মিত হয় একটি সেতু। এখন পর্যন্ত সংস্কার করা হইনি এই সেতুর।
সরেজমিনে দেখা যায়, মির্জাগঞ্জে ঝুঁকিপূর্ণ এই সেতু দিয়ে প্রতিদিন চলাচল করছেন হাজারো মানুষ। যে কোনো সময় সেতুটি ধসে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। সেতুর মধ্যেখানে গর্ত থাকায় যান চলাচলে মারাত্মক ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। এ ছাড়া সেতুর দুই পাশের রেলিংগুলো নড়বড়ে। ফলে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই। সেতু দিয়ে মজিদবাড়িয়া ইউনিয়নের মজিদবাড়িয়া গ্রাম, তারাবুনিয়া, সুলতানাবাদ করমজা বুনিয়া গ্রামের মানুষের যাতায়াত করে। পুরনো সেতুটি অনেক দিন থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে আছে। যে কোন সময় সেতুটি খালে ধসে পারে বলে জানান স্থানীয়রা।
একই ইউনিয়নের, মো. রাসেল, মো. খলিল, মো. সুমন সহ একাধিক ব্যক্তি বলেন, সেতুটি অতিরিক্ত ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার কারণে গাড়ি উঠলেই বুকটা থরপর করে কেঁপে উঠে। এতে আমাদের মধ্যেও ভীতির সৃষ্টি হয়। মজিদবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার কিসলু মিয়া বলেন, আমি সেতুটি পরিদর্শন করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তারা দ্রুত সময়ের মধ্যে সেতুটি সংস্কারের জন্য আশ্বস্ত করেছেন। উপজেলা প্রকৌশলী শেখ আজিম-উর রশিদ বলেন, দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে, ঠিকাদার নিয়োগের পর নতুন করে সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *