প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বার অভিযোগ, সামাজিক স্বীকৃতি দাবি

সারাবাংলা

বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের চিতলমারীতে চরডাকাতিয়া সিকদার পাড়ায় এক বুদ্ধি ও বাক প্রতিবন্ধী যুবতী ধর্ষণের শিকার হয়ে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই প্রতিবন্ধীর বাবা মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ধর্ষক আকরাম (আক্কেল) শেখকে (৫৫) আসামি করে চিতলমারী থানায় মামলা করেছেন। অভিযুক্ত আক্কেল একই গ্রামের বাসিন্দা।

এলাকাবাসী জানান, আক্কেল শেখ ওই প্রতিবন্ধীর বাড়ির সামনে প্রায়ই গরু চড়াতেন। মাঝে মধ্যে তিনি ওই বাড়িতে যাওয়া-আসা করতেন। আক্কেল বয়স্ক লোক হওয়ায় গ্রামের লোকজন তার ওই বাড়িতে যাওয়া-আসার বিষয়কে স্বাভাবিক মনে করতেন।

ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধীর বাবা জানান, কয়েকদিন আগে মেয়ের শারীরিক পরিবর্তন দেখে ডাক্তারের কাছে যাই। ডাক্তার আল্ট্রাসোনোগ্রাফি করে জানান, তার মেয়ে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

তিনি বলেন, আমার নির্বাক, সহজ সরল মেয়ের সঙ্গে এমন কাজ কেউ করতে পারে তা কখনো ভাবিনি। আমি এ ঘটনায় দোষীর উপযুক্ত শাস্তি ও মেয়ের সামাজিক স্বীকৃতি দাবি করছি।

সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য হায়দার সিকদার বলেন, আমরা এই অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি এবং মেয়েটির নিরাপত্তা ও তার গর্ভের সন্তানের সামাজিক স্বীকৃতি চাই।

চিতলমারী থানার ওসি মীর শরীফুল হক জানান, উপজেলার চরডাকাতিয়া সিকদার পাড়ার বুদ্ধি ও বাক প্রতিবন্ধী যুবতী মেয়েকে ধর্ষণের বিষয়ে তার বাবা মঙ্গলবার ধর্ষণের অভিযোগে আকরাম (আক্কেল) শেখের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আমরা আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *