প্রথম ধাপে স্থগিত ৫ ইউপিতে ভোট ২ নভেম্বর: ইসি

রাজনীতি লিড ১

ডেস্ক রিপোর্ট: ভোটগ্রহণের আগে চেয়াম্যান পদে মনোনীত বৈধ প্রার্থীর মৃত্যু হওয়ায় স্থগিত থাকা ৫ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোট আগামী ২ নভেম্বর করা হবে। এজন্য নতুন তফসিল দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সম্প্রতি ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপসচিব আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ তফসিল ঘোষণা করেছে ইসি।

ইসি জানায়, প্রথম ধাপের ঘোষিত তফসিলের মধ্যে ভোটগ্রহণের আগে প্রার্থীর মৃত্যু হওয়ায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ধারা ২০ এবং স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) নির্বাচন বিধিমালা, ২০১০ এর বিধি ১০ অনুসারে ৫টি ইউপির চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য ও সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য পদে আগামী ২ নভেম্বর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

যেসব ইউপিতে ভোটগ্রহণ করা হবে- খুলনার পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়ন, বাগেরহাটের মোরলগঞ্জ উপজেলার খাউলিয়া, কচুয়া উপজেলার কচুয়া, রামপাল উপজেলার রাজনগর, সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার ভাতগাঁও।

এ ৫ ইউপির ভোটে মনোনয়পত্র দাখিলের শেষ তারিখ ৯ অক্টোবর (শনিবার), মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের তারিখ ১১ অক্টোবর (সোমবার), আপিলের শেষ দিন ১৪ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার), আপিল নিষ্পত্তির তারিখ ১৬ অক্টোবর (শনিবার), প্রার্থিতা প্রত্যাহরের শেষ দিন ১৭ অক্টোবর (রোববার), প্রতীক বরাদ্দ ১৮ অক্টোবর (সোমবার) এবং ভোটগ্রহণ ২ নভেম্বর (মঙ্গলবার)।

প্রার্থিতা বিষয়ক অন্যান্য কার্যক্রমের বিষয়ে ইসি জানায়, চেয়ারম্যান পদে ইতোপূর্বে যারা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন তাদের নতুন করে মনোয়নপত্র দাখিলের প্রয়োজন হবে না। আগে মনোনয়নপত্র দাখিলকারীদের নতুনভাবে মনোনয়নপত্র দাখিল/প্রত্যাহারের সুযোগ দেওয়া যাবে। এসব ইউপির সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য ও সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য পদে পূর্বের মনোনয়ন বহাল থাকবে। সংরক্ষিত পদে এসব প্রার্থীদের মধ্যেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। শুধুমাত্র চেয়ারম্যান পদে নতুনভাবে মনোয়ন দাখিল করা যাবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *