প্রধানমন্ত্রী শেখ সঙ্গে বিল গেটসের সৌজন্য সাক্ষাৎ

জাতীয়

ডেস্ক রিপোর্ট: স্কটল্যাণ্ডের গ্লাসগো শহরে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও গুরুত্বপূর্ণ জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৬ এর ফাঁকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন প্রযুক্তি জায়ান্ট মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস।

সোমবার (১ নভেম্বর) তথ্য অধিদফতর স্কটিশ সিটিতে হাসিনা ও গেটসের কথা বলার একটি ছবি প্রকাশ করেছে। আলোচনার বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানা যায়নি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কপ২৬ জলবায়ু সম্মেলনে অংশ নেন। সেখানে তিনি এক গুরুত্বপূর্ণ ভাষণে বলেছেন, উন্নত দেশগুলোকে অবশ্যই তাদের জাতীয়ভাবে নির্ধারিত অবদান (এনডিসি) জানাতে হবে এবং জাতীয় কার্বন নিঃসরণ হ্রাস এবং জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব অভিযোজন বাস্তবায়ন করতে হবে। পাশাপাশি কার্বন নিঃসরণকারী প্রধান দেশগুলোকে অবশ্যই তাদের উচ্চাভিলাষী এনডিসি পেশ করতে হবে এবং সেগুলি বাস্তবায়ন করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী নির্গমন হ্রাস করতে দেশের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও তুলে ধরেন। তিনি বলেন, তাঁর সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে যার মধ্যে রয়েছে- দেশের এনডিসি আপডেট, ১২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিদেশী বিনিয়োগে ১০টি কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাতিল এবং ২০৪১ সালের মধ্যে নবায়নযোগ্য উৎস থেকে আমাদের শক্তির ৪০ শতাংশ নেয়া।

এদিকে টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফ্ট-এর প্রতিষ্ঠা এবং এর সফল ব্যবসার মধ্য দিয়ে বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনকুবেরে পরিণত হয়েছেন বিল গেটস। তার মনোযোগ সবুজ বিনিয়োগ বা শূন্য-কার্বন শক্তি খাতে বিনিয়োগ।

‘হাউ টু এভয়েড অ্যা ক্লাইমেট ডিজাস্টার’ বইয়ের লেখক গেটস একটি ফেসবুক পোস্টে বলেছেন, তিনি জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়ে বিশ্ব এগিয়ে আসবে বলে আশাবাদী। জলবায়ু পবির্তন জনিত প্রভাব মোকাবিলায় উদ্ভাবনী শক্তি ও সৃজনশীলতা এ ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। কেন তিনি এমনটা ভাবেন সে নিয়ে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে কথা বলবেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *