প্রস্তুতি শেষ: দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু বৃহস্পতিবার

জাতীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজার সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। আজ বুধবার দুর্গতিনাশিনী দশভুজা দেবীর বোধন। বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) মহাষষ্ঠীর মধ্যদিয়ে শারদীয় দুর্গাপূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। ঢাকের বোল, কাঁসর ঘণ্টা, শাঁখের ধ্বনিতে মুখর হয়ে উঠবে দেশের পূজামণ্ডপগুলো।

মহালয়া, বোধন ও সন্ধিপূজা-এই তিন পর্ব মিলে হয় দুর্গোৎসব। তবে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারির কারণে এবার শারদীয় ‘দুর্গোৎসব’কে ‘দুর্গাপূজা’ হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। অর্থাৎ এবার কোনো উৎসব হবে না, শুধু পূজা হবে।

দেবীপক্ষের শুরু হয় যে অমাবস্যায়, সেদিন হয় মহালয়া। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, সেদিন ‘কন্যারূপে’ মর্তে আসেন দেবী দুর্গা। গত ১৭ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মধ্যদিয়ে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে।

আজ বুধবার পঞ্চমী তিথিতে দেবীর বোধন হবে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার মহাষষ্ঠী তিথিতে ষষ্ঠীপূজার মাধ্যমে শুরু হবে শারদীয় দুর্গাপূজার মূল অনুষ্ঠান। আগামী সোমবার মহাদশমীতে প্রতিমা বিসর্জনে শেষ হবে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা।

মহামারি করোনার কারণে এবার পূজার অনুষ্ঠানমালা শুধু ধর্মীয় রীতিনীতি অনুসরণ করে পূজা-অর্চনার মাধ্যমে মন্দির বা মণ্ডপ প্রাঙ্গণে সীমাবদ্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
এবার পূজামণ্ডপের সংখ্যাও কিছুটা কম। এবার ৩০ হাজার ৮১টি মণ্ডপে পূজার আয়োজন চলছে।

পূজামণ্ডপে যাওয়ার জন্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের গাইডলাইন অনুসরণ করতে বলা হয়েছে। মণ্ডপ ও ভক্ত পুজারিদের নিরাপত্তায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নির্দেশনায় পূজাকে কেন্দ্র করে শোভাযাত্রা, প্রসাদ বিতরণ ও আলোকসজ্জা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *