ফুলবাড়িয়া উপজেলার ইউপি নির্বাচন ম্যাজিস্ট্রেট লাঞ্ছিত পুলিশসহ আহত ২০

লিড সারাবাংলা

ফুলবাড়িয়া প্রতিনিধি
দ্বিতীয় ধাপে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হচ্ছিল। দুপুরের পর হঠাৎ পরিবেশ অশান্ত হয়ে ওঠে। আছিম পাটুলী ইউনিয়নের জঙ্গলবাড়ী কেন্দ্রে ম্যাজিস্ট্রেট লাঞ্ছিত, ফাঁকা গুলি, কেন্দ্র স্থগিত ও পুলিশ সদস্যসহ আহত অন্তত ২০ জন। পুলিশ ও স্থানীয়দের তথ্যমতে, কুশমাইল ইউনিয়নের নিউগি কুশমাইল ভোটকেন্দ্রে হঠাৎ কিছু যুবক ভোটার সেজে কেন্দ্রে প্রবেশ করে তারা ব্যালট পেপারের বই, সিল জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালায়। প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মো. লুৎফর রহমানের নির্দেশে কতর্ব্যরত পুলিশ ফাঁকা গুলি করে। এ সময় হুড়াহুড়িতে চার পুলিশ সদস্যসহ অন্তত সাতজন আহত হয়। ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগ এনে কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা।
আছিম পাটুলী ইউনিয়নের জঙ্গলবাড়ী ভোটকেন্দ্রে বিকেল ৩.৩০ মিনিটের দিকে সরকারি দলের চেয়ারম্যান প্রার্থী এসএম সাইফুজ্জামানের ভাতিজা হান্নানের নেতৃত্বে কর্তব্যরত বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানার উপর হামলা করে। এ সময় পুলিশ কাঁদানো গ্যাস ছোঁড়ে নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে ত্রিশাল-ফুলবাড়িয়ার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে এবং অবরুদ্ধ ম্যাজিস্ট্রেটকে উদ্ধার করে। এ ছাড়াও কুশমাইল কড়ইতলা, বাকতা উচ্চ বিদ্যালয়, রঘুনাথপুর উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনায় অন্তত ১৩ জন আহত হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *