ফেসবুক লাইভে ব্যর্থ প্রেমিকের আত্মহত্যা

সারাবাংলা

সিলেট প্রতিনিধি : প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ফেসবুক লাইভে এসে আত্মহত্যা করেছেন আলহাজ উদ্দিন নামে এক যুবক। বুধবার রাত ৯টার দিকে সিলেট মোগলাবাজার থানার আলমপুরে ওই যুবকের ভাড়া বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

আত্মহত্যার আগে কেন তিনি প্রকাশ্যে জীবন দিলেন তারও কিছুটা ইঙ্গিত জানিয়ে গেছেন ফেসবুকের এক স্ট্যাটাসে।

আলহাজ উদ্দিন (১৯) জকিগঞ্জ উপজেলার মানিকপুর ইউনিয়নের দরগাবাহারপুর গ্রামের লিয়াকত আলীর ছেলে। তিনি গত বছর আলমপুরস্থ সিলেট সরকারি কারিগরি ইনস্টিটিউট থেকে এসএসসি পাস করেন।

তবে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার প্রায় ঘণ্টাখানেক আগে একটা মেয়েকে দায়ী করে ওই যুবক আবেগঘন পোস্ট দিয়েছিলেন। সেই মেয়েটির পরিচয় পাওয়া না গেলেও যুবকের সঙ্গে তার একটা ছবি মিলেছে।

মেয়েটির ছবি সংযুক্ত ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন– ‘কিছু মানুষ নিঃস্বার্থভাবে ভালোবাসে। তারা অনেক স্বার্থপর হয় প্রিয় মানুষটার বিষয়ে। সব কিছু দিয়ে তাদের পেতে চায়। আর আমি কোনোভাবে পাইনি। চলে যাচ্ছি না ফেরার দেশে। ভালোবেসো না ঠকে যাবে।’

এ স্ট্যাটাস দেয়ার প্রায় ঘণ্টা সময় পর লাইভে এসে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন আলহাজ উদ্দিন।

অনেকে যুবকের এ আত্মহত্যার ঘটনার আসল রহস্য উদ্ঘাটন করে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।

নিহতের চাচা আফজল হোসেন জানান, রাতে বাসায় নিহত আলহাজের মা ও বোন ছিলেন। ছেলেটি তার মাকে চা বানানোর কথা বলে রুমে চলে যায়। রুমের ভেতরে সাউন্ডবক্স দিয়ে গান বাজিয়ে আত্মহত্যা করায় কেউ কিছু বুঝেননি।

আত্মহত্যার কারণ তিনি বলতে চাননি। তবে ফেসবুক লাইভে ‘তুমি সুখে থাকো’ এ কথা বলে আত্মহত্যা করেছে, এমনটি নিহত আলহাজের চাচার দাবি।

এদিকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আত্মহত্যার লাইভ দৃশ্যটি তাৎক্ষণিক সরিয়ে নিয়েছে। তবে কয়েকজন ভিউয়ার্স জানিয়েছেন– আত্মহত্যার লাইভ চলাকালে সাউন্ডবক্সে গান বাজতে শুনতে পেয়েছেন তারা।

সিলেট মোগলাবাজার থানার ওসি সাহাবুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ফেসবুক লাইভে এসে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। প্রেমঘটিত কারণে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *