বরকে অচেতন করে ‘১০ ভরি’ স্বর্ণ নিয়ে চাচার সঙ্গে পালালেন নববধূ

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট: নোয়াখালীর চটখিলে বিয়ের পাঁচদিনের মাথায় ‘১০ ভরি’ স্বর্ণ নিয়ে প্রেমিকের (সম্পর্কে চাচা) সঙ্গে পালালেন এক নববধূ। গতকাল বুধবার ভোরে উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের বানসা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় রাতে বরকে অচেতন করে ওই নববধূ নিজ বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল খায়ের গণমাধ্যমকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘নববধূ নিখোঁজের পর তার বাবা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। পুলিশ তাকে উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে।’

চাটখিল থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার (৮ অক্টোবর) চাটখিল উপজেলার হাসর গ্রামের সাজ্জাত হোসেনের (৩০) সঙ্গে বানসা গ্রামের আবদুল জলিলের মেয়ের পারিবারিকবাবে বিয়ে হয়। মঙ্গলবার সাজ্জাত তার স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যান। গভীর রাতে সাজ্জাতকে তার স্ত্রী অচেতন করে পাশের বাড়ির চাচার সঙ্গে পালিয়ে যান। পরে পরিবারের লোকজন সাজ্জাতকে উদ্ধার করে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

সাজ্জাতের মা রওশন আরা বেগম দাবি করেছেন, নববধূ বিয়ের সময় স্বামীর দেওয়া ১০ ভরি স্বর্ণের গহনা, স্বামীর কাছে থাকা ৫০ হাজার টাকা এবং বিদেশি ১৫ হাজার রিয়াল (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় তিন লাখ টাকা) নিয়ে উধাও হয়ে গেছে। তারা বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেছেন।

পালিয়ে যাওয়া নববধূর বোন রুমি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার বোন কোথায় বা কার সঙ্গে পালিয়ে গেছে, তা আমরা এখনো নিশ্চিত হতে পারিনি। আমরা পুলিশকে জানিয়েছি। তারা তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করছে।’

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *