বরাবরই রায়পুর পৌরবাসীর পাশে মেয়র রুবেল ভাট

সারাবাংলা

ইজাজ হোসেন রুমান, রায়পুর থেকে:
করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) ভয়াবহ রুপ ধারণ করায় এর প্রভাবে ঘরবন্দি প্রায় সবাই। কর্মহীন হয়ে নিম্ন আয়ের মানুষরা পড়েছেন বিপাকে। অনিশ্চিত জীবন নিয়ে বেঁচে থাকার কঠিন লড়াই করে চলছেন তারা। এমন সময় প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যসহ নানা রকম সাহায্য নিয়ে ১ম ও ২য় ধাপে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন সামর্থ্যবান মানুষরা। করোনার ১ম ও ২য় ধাপে লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুরে অনেক বিত্তবানরা এগিয়ে এসেছিলেন অসহায় মানুষদের পাশে। কিন্তু ৩য় ধাপে আর দেখা মিলছেনা সেই ত্রাণ বিতরণকারীদের। কিন্তু আগের ন্যায় এবারও প্রায় ৬ শতাধিক পরিবারের পাশে খাদ্য উপহার নিয়ে দাঁড়িয়েছেন রায়পুর পৌরবাসীর পাশে রয়েছেন মেয়র গিয়াস উদ্দীন রুবেল ভাট। মেয়র নির্বাচিত হওয়ার আগ থেকে এ পর্যন্ত করোনায় বিপর্যস্ত বেশ কয়েকটি পরিবারের ভরণ-পোষণের দায়িত্বও নিয়েছেন তিনি। দায়িত্ব নিলেও সামাজিক বিড়ম্বনার ভয়ে প্রকাশ করছেন না তিনি। এ প্রসঙ্গে গিয়াস উদ্দীন রুবেল ভাট বলেন, সামর্থ্যবানরা যদি নিজ নিজ সাধ্য অনুযায়ী আশপাশের অসহায় মানুষদের দায়িত্ব নেয় তবে আশা করি কেউ না খেয়ে থাকবে না। কেউ কষ্টে ভুগবে না। রুবেল ভাট আরও বলেন, আমি একজন পৌর মেয়র হিসেবে আমার সাধ্যমতো অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আমার দেখা কিছু পরিবারের দুরবস্থা জানতে পেরে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পাশে দাঁড়িয়েছি। একজন মেয়র হিসেবে দায়বদ্ধতার জায়গা থেকেই চেষ্টা করছি সহযোগিতা করার। আল্লাহ যতদিন সামর্থ্য দেবেন ততদিনই মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করবো। অন্যদিকে ত্রান বিতরণের পাশাপাশি নবনির্বাচিত এ মেয়র পৌরবাসীর সকল দুর্দশা লাঘবে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন খানাখন্দভরা পৌরসভার বিভিন্ন রাস্তাঘাট সংস্কারসহ পৌরবাসীদের প্রথম সারির নাগরিকের সব প্রকার সুবিধাদি প্রদান করতে। গত লকডাউনেও নিজস্ব অর্থায়নে রায়পুর পৌর শহরের ১হাজার অসহায় পরিবারের পাশে খাদ্য উপহার নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *