বাইডেন-কমলা হ্যারিসকে বিশ্বনেতাদের শুভেচ্ছা

আন্তর্জাতিক

অনলাইন ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বিশ্বনেতারা।

টুইটবার্তায় বিশ্বের অনেক নেতা তাদেরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বাইডেনকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি সদ্য বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে অভিষেক দিবসে জো বাইডেনকে অভিনন্দন।

আমরা দুই দেশ মিলে ইতিহাসের বড় বড় চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেছি। কমলা হ্যারিস ও আপনার প্রশাসনের সঙ্গে এই অংশীদারত্ব চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশায় রয়েছি।’

ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরোঁ বাইডেনকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইটবার্তায় বলেছেন, ‘আমরা এক সঙ্গে আছি।

আমাদের সময়ে আসা সব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা আরও শক্তিশালী হব। নিজেদের ভবিষ্যৎ গড়তে আরও শক্তিশালী হব। বিশ্বকে রক্ষায় আমরা আরও শক্তিশালী হব। প্যারিস চুক্তিতে আবারও স্বাগত। এমন বিশেষ দিনে আমেরিকার মানুষের জন্য শুভকামনা রইল।’

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু টুইটবার্তায় বলেছেন, ‘জো বাইডেন ও কমলা হ্যারিস—ঐতিহাসিক এই অভিষেক দিবসে আপনাদের অভিনন্দন।

প্রেসিডেন্ট বাইডেন আপনার সঙ্গে আমার কয়েক দশকের ব্যক্তিগত বন্ধুত্ব রয়েছে।’

সদ্য বিদায়ী প্রেসিডেন্টকে স্মরণ করেও টুইট করেন নেতানিয়াহু। ট্রাম্পকে নিয়ে করা টুইটে তিনি বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, ইসরায়েলের জন্য আপনি যা করেছেন সে জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

বিশেষ করে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার ঐতিহাসিক ঘোষণা এবং ইসরায়েলের সঙ্গে আরব বিশ্বের শান্তি চুক্তির ব্যাপারে আপনার নেওয়া পদক্ষেপ।’

ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বাইডেনের উদ্দেশে লেখা এক চিঠিতে বলেন, ‘এই অঞ্চল ও সারা বিশ্বে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করতে আমরা এক সঙ্গে কাজ করব বলে প্রত্যাশা করছি।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইটে বলেন, ‘মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে দায়িত্বভার গ্রহণ করার জন্য জো বাইডেনকে উষ্ণ অভিনন্দন জানাই। ভারত-মার্কিন কৌশলগত বোঝাপড়ার উন্নতির বিষয়ে তার সঙ্গে কাজ করার দিকে তাকিয়ে আছি।’

ওভাল অফিসে স্থানীয় সময় বুধবার বেশ কটি নির্বাহী আদেশে সই করার কথা রয়েছে বাইডেনের। এর মধ্যে পুনরায় প্যারিস চুক্তিতে যুক্ত হওয়ার বিষয়টিও রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *