বায়ার্ন তারকার সঙ্গে ব্রেকআপের এক সপ্তাহ পরই প্রেমিকার রহস্যজনক মৃত্যু

খেলাধুলা

ক্রীড়া ডেস্ক : বায়ার্ন মিউনিখ তারকা জেরম বুয়াটেংয়ের সম্পর্ক ছিন্ন করার এক সপ্তাহ পরই পাওয়া গেল প্রেমিকার মরদেহ। মঙ্গলবার বার্লিনের বাসা থেকে লেনার্ডের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ইউরোপের জনপ্রিয় ক্রীড়াদৈনিক মার্ক।

বার্লিন পুলিশের বরাতে গণমাধ্যমটি জানায়, বায়ার্ন ডিফেন্ডার জেরম বুয়াটেংয়ের সাবেক প্রেমিকা ছিলেন কাসিয়া লেনার্ড। লেনার্ড ছিলেন একজন প্রখ্যাত পলিশ মডেল। ১৫ মাসের সম্পর্ক ছিল তাদের মধ্যে। কিছুদিন আগে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়েন বুয়াটেং। এরপরই লেনার্ডের সঙ্গে ঝামেলা বাঁধে। এরপর গত সপ্তাহে একবছরের বেশি সময় ধরে চলা সম্পর্কের ইতি টানেন বুয়াটেং। আর বিচ্ছিন্নতার এক সপ্তাহ পরই নিজ ফ্ল্যাটে মরদেহ মিলল লেনার্ডের ।

সাবেক প্রেমিকার এ আকস্মিক মৃত্যুতে এখনও পর্যন্ত সমস্যায় পড়েননি বুয়াটেং।

বার্লিন পুলিশের ভাষ্য, ২৫ বছর বয়সী মডেল কাসিয়া লেনার্ড আত্মহত্যা করেছেন। তার মৃত্যুকে হত্যা বিবেচনা করে কোনো তদন্ত করা হচ্ছে না। তবে এ আত্মহত্যার সঙ্গে বুয়াটেংয়ের সম্পর্ক ছেদের যোগসূত্রিতা আছে কি না তা নিয়ে তদন্ত হতে পারে।

কেন সম্পর্ক ছিন্ন করেছিলেন বুয়াটেং সে বিষয়ে তিনি বলেছিলেন, লেনার্ড সবসময় আমাকে ধ্বংস করে দেওয়ার ও আমার খ্যাতি নষ্ট করার হুমকি দিতো। আমার বাচ্চাদের থেকে দূরে সরিয়ে রাখার ও সম্পর্ক শেষ করার চেষ্টা করত। তাতে আমি মারধর করি বলি অভিযোগ আনার কথা বলত। কারণ সে জানত, আমার সাবেক স্ত্রী আমার বিরুদ্ধে ওই একই অভিযোগ এনেছিলেন।

জানা গেছে, গত ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে দলের সঙ্গে কাতারে অবস্থান করছিলেন বুয়াটেং। সাবেক প্রেমিকার মৃত্যুর খবর শোনার পর পরই কাতার ছেড়ে মিউনিখে ফিরেছেন তিনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *