বিএইচবিএফসি’র ‘ব্যবস্থাপক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

অর্থ-বাণিজ্য কর্পোরেট কর্ণার

অর্থনৈতিক ডেস্ক: বিএইচবিএফসি’র ‘ব্যবস্থাপক সম্মেলন-২০২১’ শনিবার (৯ অক্টোবর) প্রতিষ্ঠানটির সদর দফতরস্থ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিএইচবিএফসি পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মো. সেলিম উদ্দিন, এফসিএ, এফসিএমএ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএইচবিএফসি ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আফজাল করিম। প্রতিষ্ঠানের ৬ মহাব্যবস্থাপক যথাক্রমে অরুন কুমার চৌধুরী, মো. আতিকুল ইসলাম, মো. জসীম উদ্দীন, মো. তোফায়েল আহমেদ, প্রলয় কুমার ভট্টাচার্য ও মো. খাইরুল ইসলাম সম্মেলনে উপস্থিত থেকে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পর্ব ও সেশন পরিচালনা করেন। সদর দফতরের সকল উপমহাব্যবস্থাপক, ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ জোন-এর জোনাল ম্যানেজার, রিজিওনাল ম্যানেজার ও শাখা ম্যানেজার এবং প্রতিটি বিভাগের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ কর্মকর্তা সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন। ঢাকার বাহিরের সকল জোনাল, রিজিওনাল ও শাখা ব্যবস্থাপকবৃন্দ ভার্চুয়ালি সম্মেলনে যোগদান করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে ব্যবস্থাপনা পরিচালক সম্মেলনে সকলকে স্বাগত জানান। তিনি ২০২০-২০২১ অর্থবছরে ব্যবসায় ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটির এযাবৎকালের সেরা সাফল্য, মুনাফা অর্জন, এপিএ-তে প্রথম স্থান অর্জন প্রসঙ্গ উপস্থাপন করে এসব সাফল্য আগামীর দায়িত্ব বাড়িয়ে দিয়েছে মর্মে উল্লেখ করেন। এসময় তিনি এ অর্থবছরের শুরুতেই চলতি অর্থবছরের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দেওয়া ও তা অর্জনের রূপরেখা সম্পর্কে আলোচনা করেন। আফজাল করিম এসময় পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত¡ও তুলে ধরেন।
আফজাল করিম ডিজিটাইজেশনের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটির গৃহীত নানা কমৃসূচীর তথ্য তুলে ধরে এর সার্বিক সাফল্য ও অগ্রগতির ক্ষেত্রে বিশেষত কর্পোরেশন পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান, অর্থমন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মহোদয়সহ সংশ্লিষ্ট নির্বাহীদের সর্বোত সহযোগিতার জন্য তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
উদ্বোধনী বক্তব্যে প্রফেসর ড. মো. সেলিম উদ্দিন গৃহায়ণের ক্ষেত্রে সরকারিভাবে ঋণ প্রদানকারী সংস্থা হিসেবে বিএইচবিএফসি’র কর্মপরিধি বিষয়ে আলোচনার সূত্রপাত করে নিজ ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটিকে রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠার আহবান জানান। এক্ষেত্রে ড. সেলিম প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের প্রত্যেককে সততা, দক্ষতা, প্রতিষ্ঠানের প্রতি ভালবাসা এবং প্রত্যয়ের সমাহার ঘটিয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠান তথা দেশের জন্য সম্পদে পরিণত করারও নির্দেশ দেন। তিনি প্রতিষ্ঠানটিকে সর্বস্তরের মানুষের দোরগোড়ায় নিয়ে যাওয়া এবং সাধারণের চাহিদা পূরণের তাগিদ পুর্নব্যক্ত করেন। ড. সেলিম এসময় ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন নির্বাহীদের যোগ্যতার প্রশংসা করে তাঁদের নেতৃত্বে বিএইচবিএফসিকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার আহŸান জানিয়ে এবং সম্মেলনটির সর্বাঙ্গীন সফলতা কামনা করে এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। উল্লেখ্য, দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপক সম্মেলনের পরবর্তী পর্বসমূহে প্রতিষ্ঠানটির সকল জোনাল, রিজিওনাল ও শাখা অফিসসমূহের সাম্প্রতিক পারফর্মেন্স এবং অর্থবছরের অবশিষ্ট সময়ের পরিকল্পনা ও তা বাস্তবায়ন বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করত: গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা প্রদান করা হয়। সম্মেলনের সমাপ্তি পর্বে বিগত বছরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতিত্ব অর্জনকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্বীকৃতিপত্র ও পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *