বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি গ্রেফতার

সারাবাংলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস.এম. মাহবুব হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার ভোর রাতে উপজেলার ভিটিদাউদপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এস.এম মাহবুব হোসেন ওই গ্রামের সিফু মিয়ার ছেলে। মাহবুবের বড় ভাই প্রবাসী জাকির হোসেনের স্ত্রী রেহেনা আক্তারের দায়েরকৃত মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানার আসামী হিসেবে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গত ৪ আগস্ট মাহবুবের বড় ভাই প্রবাসী জাকির হোসেনের স্ত্রী রেহানা আক্তার বাদি হয়ে তাঁর স্বামী, দেবর ও শ্বাশুড়িসহ ছয়জনকে আসামি করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলার অপর আসামীরা হলেন, জাকির হোসেন, মোস্তফা হোসেন, নূরানী বেগম, শমলা খাতুন ও আইরিন আক্তার। পুলিশ জানায়, আদালত থেকে পাওয়া গ্রেপ্তারী পরোয়ানার আসামী হিসেবে মাহবুবকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
মামলার বাদি রেহেনা আক্তার অভিযোগ করে বলেন, তাঁর স্বামী জাকির হোসেন নিজের পছন্দে তাকে বিয়ে করেন। কিন্তু স্বামীর পরিবারের লোকজন তাকে মেনে নিতে পারেনি। বিয়ের পর থেকেই শ্বশুর বাড়ির লোকেরা তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার জন্য নির্যাতন শুরু করে। সব কিছু জেনেও স্বামী তার উপর নির্যাতনের কোন প্রতিবাদ করেন নি।
সম্প্রতি স্বামী তাকে থাকার জন্য বাড়িতে একটি আলাদা ঘর করে দেন। এরপর থেকে তার উপর নির্যাতন আরো বাড়তে থাকে। তিনি ঘরে ঢুকতে পারেননি, তাকে সবাই মিলে মারধোর করে বের করে দেয়। তার স্বামী বর্তমানে সৌদি আরবে আছেন। বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আতিকুর রহমান বলেন, গত চার আগষ্ট মাহবুবের ভাবী রেহেনা আক্তারের আদালতে দায়ের করা মামলার গ্রেপ্তারী পরোয়ানার আসামী হিসেবে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *