বিশ্বজুড়ে আরও সাড়ে ৫ হাজার মানুষের প্রাণহানি

আন্তর্জাতিক

ডেস্ক রিপোর্ট: বিশ্বজুড়ে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৫ হাজার ৪৯৫ জন। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৮৭ হাজার ২৫২ জন।

এর আগের ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছিল ৪ হাজার ৫৩৭ জনের এবং শনাক্তের সংখ্যা ছিল ২ লাখ ৯৯ হাজার ৩৪১ জন।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) সকাল সাড়ে আটটায় আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

নতুন মৃত্যুর ফলে বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৪৮ লাখ ৭২ হাজার ৪৪৭ জনে। শনাক্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩ কোটি ৯০ লাখ ১০ হাজার ২৬৪ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে সবচেয়ে বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। এ সময়ে দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ হাজারের বেশি মানুষ। অন্যদিকে একদিনে মৃত্যুর শীর্ষে উঠে এসেছে রাশিয়া। দেশটিতে একদিনে প্রায় এক হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ কোটি ৫৩ লাখ ১৩ হাজার ৩৫৩ জনে। দেশটিতে এ ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৭ লাখ ৩৪ হাজার ৬১১ জনের।

তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ কোটি ৩৯ লাখ ৮৪ হাজার ৪৭৯ জন। দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৫০ হাজার ৯৯১ জনের।

তালিকার তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬ লাখ ১২ হাজার ৬৬ জন আর সংক্রন শনাক্ত হয়েছে ২ কোটি ১৫ লাখ ৮২ হাজার ৭৩৮ জনের।

তালিকার পরের স্থানগুলোতে রয়েছে যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, রাশিয়া, তুরস্ক, ফ্রান্স, ইরান, আর্জেন্টিনা, স্পেন।

তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান এখন ২৯ নম্বরে।

দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২৭ হাজার ৬৯৯ জন। মোট শনাক্ত হয়েছে ১৫ লাখ ৬২ হাজার ৯৫৮ জন। দেশে করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৫ লাখ ২৪ হাজার ৪৬৭ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়। এরপর দ্রুত দেশে দেশে ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাসটি। গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ ঘোষণা করে। ওই বছরেরই ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এ রোগে আক্রান্ত একজনের মৃত্যু হয় ওই মাসেরই ১৮ তারিখে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *