বিশ্বের কোন শক্তি লাদাখ সিমান্তে সেনা টহল রুখতে পারবে না: রাজনাথ সিং

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কংগ্রেস সাংসদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে রাজনাথ বলেন, প্রথাগতভাবে টহলদারি দিচ্ছে সেনা। বিশ্বের এমন কোনও শক্তি নেই সেই জায়গা থেকে সরাতে পারে সেনা
বিশ্বের এমন কোনও শক্তি নেই, লাদাখ সীমান্তে সেনাকে টহলদারি থেকে বিরত রাখে! রাজ্যসভায় লাদাখ প্রশ্নে কড়া প্রতিক্রিয়া দিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় রাজনাথ জানান, এই কঠিন পরিস্থিতিতে টহলদারিতে কোনও পরিবর্তন করা হয়নি।

কংগ্রেস সাংসদ একে অ্যান্টনির প্রশ্ন ছিল, লাদাখ সীমান্তে সেনার টহলদারিতে কি বাধা দিচ্ছে পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ)। এই প্রশ্নে রাজনাথের সাফ উত্তর, প্রশ্নই ওঠে না। কোনও অবস্থাতেই সেনা পিছু হটছে না। স্পর্শকাতর এলাকায় আগে যেমন টহলহারি দিত, সেনা চোখের উপর চোখ রেখে সেই কাজটা করে যাচ্ছে। উল্লেখ্য, একে অ্যান্টনিও প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী ছিলেন।

কংগ্রেস সাংসদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে রাজনাথ বলেন, প্রথাগতভাবে টহলদারি দিচ্ছে সেনা। বিশ্বের এমন কোনও শক্তি নেই সেই জায়গা থেকে সরাতে পারে সেনা। তবে, লোকসভায় লাদাখ বিবাদ বিবৃতিতে রাজনাথ মেনে নিয়েছেন, সীমান্তে বিপুল সমরাস্ত্র নিয়ে প্রস্তুত রাখছে চিনা সেনা। ভারতও থেমে নেই। তবে, আলোচনার মাধ্যমে এই স্থিতাবস্থা স্বাভাবিক হবে বলে মনে করছেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত মে-এপ্রিল থেকে সীমান্ত চুক্তি লঙ্ঘন করে লাগাতার অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালাচ্ছে চিনা সেনা। লাদাখ সীমান্তে দুই সেনার সংঘর্ষে শহিদ হয়েছেন ২০ জওয়ান । চিনের তরফেও ক্ষয়ক্ষতি হয়ে বলে জানা গিয়েছে। সম্প্রতি প্যাংগং লেকে উত্তর প্রান্তে ফিঙ্গার ৪-এর কাছে গুলি চলার খবর মেলে।
সূত্রের খবর, অপেক্ষাকৃত ভাল অবস্থানে থাকা ভারতীয় সেনাদের হটাতে প্ররোচনামূলক কার্যকলাপ করে লাল ফৌজ। তার জবাব সংযমের সঙ্গে দেয় সেনা। ব্যর্থ হয়ে ফিরে যাওয়ার সময় কয়েকশো রাউন্ড সতর্কতামূলক গুলি চালায় তারা। পাল্টা চিন দাবি করে, ভারতের তরফ থেকেই প্রথম গুলি চলে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *