বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ১৯ লাখ

আন্তর্জাতিক জাতীয়

অনলাইন ডেস্ক: বিশ্বে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর এক বছর পার করার সাথে করোনাভাইরাস মহামারিতে মোট প্রাণহানীর সংখ্যা দাড়াল সাড়ে ১৯ লাখেরও বেশি।

গত একদিনে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ২১২ জনের। একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৭৮ হাজার ৪২১ জন।

করোনাভাইরাস মহামারির শুরু থেকে বিশ্বের সব দেশ ও অঞ্চলের করোনা সংক্রমণের হালনাগাদ তথ্য সংরক্ষণ করছে ওয়ার্ল্ডোমিটারস নামের একটি ওয়েবসাইট।

তাদের সর্বশেষ তথ্য বলছে, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৯ কোটি ১৩ লাখ ১৪ হাজার ৩৭০ জন, মোট মারা গেছেন ১৯ লাখ ৫২ হাজার ৮৭৯ জন।

বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ৩১ লাখ ৪৩ হাজার ১৯৭ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ৩ লাখ ৮৫ হাজার ২৪৯ জন।

ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় ভারতের অবস্থান দ্বিতীয়। ভারতে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৯১৩ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ৫১ হাজার ৩৬৪ জন।

ব্রাজিল আছে তৃতীয় অবস্থানে। ব্রাজিলে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৮১ লাখ ৩৩ হাজার ৮৩৩ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ২ লাখ ৩ হাজার ৬১৭ জন।

তালিকায় রাশিয়ার অবস্থান চতুর্থ। ফ্রান্স পঞ্চম। যুক্তরাজ্য ষষ্ঠ। তুরস্ক সপ্তম। ইতালি অষ্টম। স্পেন নবম। জার্মানি দশম। তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ২৭তম।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। চীনে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যু হয় চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি। তবে তার ঘোষণা আসে ১১ জানুয়ারি। চলতি বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে বিভিন্ন দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়ে।

করোনার প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে ৩০ জানুয়ারি বৈশ্বিক স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। গত ২ ফেব্রুয়ারি চীনের বাইরে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ফিলিপাইনে।

এরই মধ্যে কয়েকটি কোম্পানির টিকার অনুমোদন দিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। এরই মধ্যে বেশ কয়েকটি দেশ টিকা প্রয়োগ শুরু করেছে। বাংলাদেশেও চলমি মাসের মধ্যে টিকা আসার কথা জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *