বেতাগীতে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের বিক্ষোভ

সারাবাংলা

বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি:
বরগুনার বেতাগীতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সড়িষামুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বরগুনা জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ইমাম হাসান শিপন জোমাদ্দারকে কুপিয়ে জখমের প্রতিবাদে আন্তঃজেলা বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার সকাল দশটা থেকে আন্তঃজেলা বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে জেলা বাস মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। একই সাথে টাউন হল চত্বরে মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে। পরে প্রেসক্লাব চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এতে বক্তব্য রাখেন জেলা আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রইসুল আলম রিপন, পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাহাবুদ্দিন সাবু, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি যুবায়ের আদনান অনিক প্রমুখ। এসময় বক্তারা আসামীদের গ্রেফতার না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলেন জানান।
গত শুক্রবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে বরগুনার বেতাগী উপজেলার সরিষামুড়ী ইউনিয়নের কালিকাবাড়ি বাজারে একটি বিড়ের দাওয়াত খেয়ে মোটরসাইকেলযোগে আসার পথে এ ঘটনাটি ঘটায় দুর্বৃত্তরা। পরে আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্থানান্তর করা হয়। সেখান থেকেও উন্নত চিকিৎসা করার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতাল নেওয়া হয়েছে।
সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ইউসুফ ও তার ছেলেরা পুর্ব শত্রুতার জেরে এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে শিপনের স্বজনদের দাবি। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি, কাউকে গ্রেফতারও করতে পারেনি পুলিশ।
বেতাগী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাখাওয়াত হোসেন বলেন, ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলার ঘটনায় কারা জড়িত তা এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া না গেলেও নির্বাচন কেন্দ্রিক প্রতিপক্ষরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে বলে আমাদের ধারণা। সন্দেহভাজনদের ধরতে আমরা অভিযান শুরু করেছি। চেয়ারম্যানের চিকিৎসার জন্য তার স্বজনরা ব্যস্ত থাকার এখনও মামলা রুজু হয়নি। তবে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *