বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের ভাতা পাইয়ে দেওয়ার জন্য দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন

সারাবাংলা

খোরশেদ আলম, আশুলিয়া থেকে:
আশুলিয়া থানাধীন ইয়ারপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সফল মেম্বার মো. আবু তাহের মৃর্ধার নির্বাচনীয় এলাকায় বয়স্ক ভাতা থেকে শুরু করে প্রতিবন্ধী ভাতা ও বিধবা ভাতাসহ সরকারি অর্থায়নের পাশাপাশি নিজ অর্থায়নে অসহায় দরিদ্রদের মধ্যে সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন এই জনপ্রতিনিধি। ইয়রপুর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আবু তাহের মৃধার তার নির্বাচনী এলাকায় শত শত মানুষদের মাঝে বয়স্ক ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতা ও বিধবা ভাতাসহ দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। করোনা মহামারী কালে গরীব, দুঃখী মানুষের পাশে সব সময় নিজ অর্থায়নে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন এই জনপ্রতিনিধি।
নতুন করে তার এলাকার মুরব্বিদের সাথে নিয়ে গিয়ে তাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ঠিকঠাক করে জমা দিয়েছেন বলে জানান। তিনি আরও বলেন, আমার নির্বাচনী এলাকা আমার অফিস উন্মুক্ত করে দিয়েছি সাধারণ জনগণের জন্য। সকাল ১০টা থেকে শুরু করে বিকাল পর্যন্ত আমার ওয়ার্ডের জনগণের সুখ-দুঃখর সুবিধা চিন্তা করেই বসে থাকি সব সময়। বয়স্কদের জাতীয় পরিচয় পত্র, ছবি জমা নিচ্ছেন এবং নিজ উদ্যোগে মোবাইল নম্বর নিয়ে নগদ একাউন্ট করে সার্বিক সহযোগিতা করে দায়িত্ব পালন করেন এই জনপ্রতিনিধি। তিনি বলেন, আমার ওয়ার্ডে একজনও বয়স্ক ভাতা প্রাপ্তি সরকারের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতে দেবো না। গত বছরে অনেক বয়স্কদের ভাতার জন্য নিবন্ধন করেছি। এবারও ইয়ারপুর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের বয়স্ক ভাতা পাবে না এমন কোন ব্যক্তি কমই আছে। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই দলমত নির্বিশেষে বাকি যত বয়স্করা রয়েছেন তাদের সবাইকে বয়স্ক ভাতা দিতে সরকারি সকল কার্যক্রমে সহযোগিতা করে অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে থাকবো বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন আবু তাহের মৃধা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *