https://www.dhakaprotidin.com/wp-content/uploads/2021/01/Web-Dhaka-Protidin-ঢাকা-প্রতিদিন.jpg

ভারতে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের লাগাম টানতে যচ্ছে সরকার

বিনোদন

বিনোদন প্রতিবেদক : ভারতে সেন্সর বোর্ডের অনুমতি ছাড়াই ওটিটি প্ল্যাটফর্মে সেনেমা মুক্তি দেয়া যায়। সে ক্ষেত্রে কোনো ধরনের বাধা-নিষেধ নেই। স্বাভাবিকভাবেই পরিচালকরা তাদের ইচ্ছার সবটুকু দেখাতে পারেন প্রতিটি দর্শককে। কিন্তু এই সুযোগ খুব দ্রুতই বন্ধ হতে যাচ্ছে। প্রেক্ষাগৃহে চলচ্চিত্র মুক্তি দিতে যেমন সেন্সর বোর্ডের অনুমতি লাগে ঠিক তেমনি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মেও লাগাম টানতে যাচ্ছে ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়।

রোববার (৩১ জানুয়ারি) কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর বলেন—ওটিটি প্ল্যাটফর্মের বেশ কিছু সিরিজ নিয়ে অসংখ্য অভিযোগ পেয়েছি। এই প্ল্যাটফর্মে যে চলচ্চিত্র বা সিরিজ মুক্তি পায় তা প্রেস কাউন্সিল আইন, কেবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক (রেগুলেশন) আইন কিংবা সেন্সর বোর্ডের আওতায় পড়ে না। ভবিষ্যতে এ ধরনের বিতর্ক এড়াতে শিগগির নতুন গাইডলাইন নিয়ে আসছি।

সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ওয়েব সিরিজ নিয়ে ভারতে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয়েছে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ উঠেছে সাইফ আলী খান অভিনীত ‘তাণ্ডব’ নামে ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে। এজন্য সাইফ আলী খান, ওয়েব সিরিজের পরিচালক ও ওটিটি প্ল্যাটফর্মের কর্ণধারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া কিছুদিন আগে একই অভিযোগ ওঠে ‘মির্জাপুর’ ও ‘অ্যা সুইটেবল বয়’ নামে ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে। এসব ওয়েব সিরিজ নিয়ে বিতর্কের জেরে লাগাম টানতে যাচ্ছে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশেও ওয়েব সিরিজ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। গত ঈদুল ফিতরে অনলাইনে মুক্তি পায় ওয়েব সিরিজ ‘বুমেরাং’। আদনান ফারুক হিল্লোল ও নাজিয়া হক অর্ষা অভিনীত ওয়েব সিরিজটি নির্মাণ করেন ওয়াহিদ তারেক। অন্যদিকে সত্য ঘটনা অবলম্বনে শিহাব শাহীন নির্মাণ করেন ক্রাইম থ্রিলার ওয়েব সিরিজ ‘আগস্ট ১৪’। ঐশী নামের বখে যাওয়া পুলিশ কর্মকর্তার মেয়ের গল্প নির্মিত হয় এটি। এতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন তাসনুভা তিশা। এসব ওয়েব সিরিজে খোলামেলা দৃশ্যে হাজির হন শিল্পীরা। এ নিয়ে নেটদুনিয়ায় শুরু হয় নানা বিতর্ক। প্রধান দুই নারী শিল্পীকে ফেসবুকে নানাভাবে হেয়প্রতিপন্ন করা হয়। কেউ কেউ বলেন—যৌনতা ও সহিংস দৃশ্য সেখানে ডালভাতের মতোই দেখানো হয়েছে।

এ নিয়ে গত ১৪ জুন সুপ্রিমকোর্টের এক আইনজীবী অনলাইন থেকে ‘আপত্তিকর’ এসব দৃশ্য সরিয়ে নেওয়ার জন্য আইনি নোটিশ পাঠান। এই আইনি নোটিশের কোনো ধরনের অগ্রগতি না দেখে ১২ জুলাই জনস্বার্থে আইনজীবী তানভীর আহমেদ রিট করেন। ওই রিটের আদেশের ধারাবাহিকতায় হইচই, নেটফ্লিক্স, অ্যামাজন, বঙ্গবিডিসহ ভার্চুয়াল ওটিটি (ওভার দ্যা টপ) মাধ্যম থেকে অশ্লীলতা রোধ, রাজস্ব আদায় সংক্রান্ত এবং এসব প্ল্যাটফর্ম নিয়ন্ত্রণে খসড়া নীতিমালা প্রণয়নের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। গত ১৮ জানুয়ারি বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

দেশবিদেশের গুরুত্বপূর্ণ সব সংবাদ পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *