ভারত ও পাকিস্তানের গোলাগুলি, ২ গেরিলা নিহত

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে যৌথবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে দুই গেরিলা নিহত হয়েছে। শুক্রবার দিবাগত গভীর রাত থেকে দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম জেলায় উভয়পক্ষের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধ’ শেষে আজ শনিবার দুই গেরিলার মৃত্যু হয়।

পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, নিরাপত্তা বাহিনী দক্ষিণ কাশ্মীরের কুলগাম জেলার চিঙ্গাম এলাকায় সন্ত্রাসীদের উপস্থিতির খবর পেয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি অভিযান চালায়। এসময়ে সন্ত্রাসীরা নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।

নিরাপত্তা বাহিনীর পক্ষ থেকে সন্ত্রাসীদের আত্মসমর্পণ করতে বলা হলেও তারা গুলিবর্ষণ চালিয়ে যাওয়ায় পাল্টা গুলিবর্ষণে দুই জন নিহত হয়েছে। নিহতদের কাছ থেকে এম-৪ রাইফেল ও পিস্তল উদ্ধার হয়েছে। সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানান, নিহত দুই সন্ত্রাসীর মধ্যে একজন পাকিস্তানি।

গণমাধ্যম সূত্রে প্রকাশ, চিঙ্গাম এলাকায় গেরিলাদের উপস্থিতির খবর পেয়ে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ, সেনাবাহিনী ও আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফের যৌথবাহিনী অভিযান চালায়। এসময় উভয়পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। ওই এলাকায় আরও গেরিলা লুকিয়ে আছে কিনা তার সন্ধানে তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে।

অন্যদিকে আজ জম্মু বিভাগে পুঞ্চ জেলায় সীমান্তে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ভারত ও পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর পাল্টাপাল্টি গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। কর্মকর্তা সূত্রে প্রকাশ, আজ শনিবার ভোরে পুঞ্চ জেলার মানকোট সেক্টরে পাকিস্তানি সেনারা গুলিবর্ষণ করে।

ভারতীয় সেনাবাহিনী পাল্টা গুলিবর্ষণের মধ্য দিয়ে পাকিস্তানি বাহিনীকে কঠোর ও কার্যকরভাবে জবাব দিয়েছে। শুক্রবার পাকসেনারা পুঞ্চ জেলার কিরনি ও কসবা সেক্টরে ছোটো অস্ত্রের সাহায্যে গুলিবর্ষণের পাশাপাশি মর্টার শেল নিক্ষেপ করেছিল।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *