ভালুকায় শতবর্ষী পুকুর রক্ষার দাবিতে ডিসির কাছে আবেদন

সারাবাংলা

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
ময়মনসিংহের ভালুকা বাজারের ঐতিহ্যবাহী শতবর্ষী একটি সরকারি খাস পুকুর ভরাট বন্ধ করা ও সংস্কার দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন স্থানীয় একজন পরিবেশকর্মী ও সাংবাদিক কামরুল হাসান পাঠান কামাল। গতকাল মঙ্গলবার সকালে তিনি ডিসির কাছে ডাক যোগে ওই আবেদন প্রেরণ করেন।
লিখিত আবেদন সূত্রে জানা যায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ও জলাশয় নীতিমালা উপেক্ষা করে একটি স্বার্থান্বেষী মহল ভালুকা বাজারের বড় মসজিদ সংলগ্ন শতবর্ষী পুকুরটি ভরাটের চেষ্টা করছে। ওই পুকুরটি শুরু পার্শবর্তী মসজিদের মুসল্লিগণের ওযু ও গোসলের কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল। কিন্তু বেশ কিছুদিন যাবৎ পুকুরের চারপাশে মসজিদ কমিটির ভাড়া দেয়া দোকানপাটের ময়লা আর্বজনা ফেলার কারণে পুকুরটি ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। গত কিছুদিন পূর্বে পুকুরটির প্রায় এক চর্তুথাংশ জায়গা বালি দিয়ে ভরাট করা হয়েছে। যার নেপথ্যে রয়েছে কোটি কোটি টাকা বানিজ্যের পরিকল্পনা।
এ বিষয়ে অভিযোগকারী পরিবেশ কর্মী ও সাংবাদিক ভালুকা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কামরুল হাসান পাঠান কামাল জানান, গত ২৪ সেপ্টেম্বর জেলা প্রশাসক পুকুরটি পরিদর্শণ করে পুকুর ভরাটের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। তাৎক্ষনিক পুকুরের বালি ভরাট বন্ধ হলেও রহস্য জনক কারণে পুকুর সংলগ্ন পশ্চিম পার্শ্বে বিশাল বালির স্তুপ জমা করে রেখেছে ঐ মহলটি। তারা যেকোন মুহুর্তে অল্প সময়ে পুকুরটি ভরাট করে ফেলতে পারে। শতবর্ষী সরকারি খাস পুকুরটি ভরাটের কাজ বন্ধ করার পাশাপাশি ঐতিহ্যবাহী পুকুরটি সংস্কার করে দৃষ্টিনন্দন করার দাবিতে আমি ওই আবেদনটি করেছি।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামলা খাতুন জানান, অভিযোগ বিষয়ে আমি কিছু জানিনা। তবে পুকুরটি ভরাট করার সময় আমি বাঁধা দিয়েছিলাম। ডিসি স্যারের সাথে এ বিষয়ে শীঘ্রই আমি কথা বলবো।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *