মনোহরদীতে মানসিক প্রতিবন্ধীকে গলা কেটে হত্যা

সারাবাংলা

নরসিংদী প্রতিনিধি
নরসিংদীর মনোহরদীতে সাইফুল ইসলাম (২০) নামে এক মানসিক প্রতিবন্ধীকে নির্মমভাবে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার রাতে উপজেলার একদুয়ারিয়া ইউনিয়নের কামারআলগী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। গতকাল রোববার সকালে মনোহরদী থানা পুলিশ তার বসতঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে। নিহত সাইফুল ইসলাম একই গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে। কে বা কারা এবং কেন তাকে হত্যা করা হয়েছে এ ব্যাপারে ঘনিষ্ঠজনদের কেউ কিছু বলতে পারছে না। ঘটনার পর থেকে নিহত সাইফুলের পিতাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।
স্বজনরা জানিয়েছে, মজিবুর রহমানের চার ছেলে-মেয়ে। এর মধ্যে সাইফুল ইসলামসহ তিনজনই মানসিক প্রতিবন্ধী। সাইফুল সব সময় বাড়িতেই পরিবারের সাথে বসবাস করত। তার কোনো ব্যক্তিগত শত্রু ছিলনা বলে জানা গেছে। সকালে তার নিজ ঘরে গলাকাটা অবস্থায় লাশ পায় বাড়ির লোকজন। পরে মনোহরদী থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। অনেকের ধারণা তার পিতা মজিবুর রহমানই থাকে হত্যা করে থাকতে পারে।
মনোহরদী থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান জানান, শনিবার রাতের কোনো একসময় প্রতিবন্ধী সাইফুলকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। ঘটনার পর থেকে তার পিতা পলাতক রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *