মহামারিতে বেড়েছে ফেসবুকে ‌‘ভুয়া খবর’!

তথ্য প্রযুক্তি

ডেস্ক রিপোর্ট : করোনাকালে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন খবর, স্ট্যাটাস, ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেছেন। যার বড় অংশই ভুয়া বলে জানিয়েছে ভারতের ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো (এনসিআরবি)।

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো (এনসিআরবি) এর দেওয়া তথ্য মতে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া খবর এবং গুজব ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনাগুলো একটি অপরাধ। মহামারি শুরুর পর থেকে এই অপরাধ প্রবণতা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।

২০১৮ সালে ভারতে ২৮০টি ভুয়া খবরের অভিযোগে মামলা হয়েছিল। ২০১৯ সালের এর সংখ্যা ছিল ৪৮৬টি। এরপর ২০২০ সালে ৫০,০৩৫টি সাইবার অপরাধের মধ্যে ৫৫৮টি কেবল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া খবর ছড়ানোর অভিযোগ ছিল।

২০১৯ সালের তুলনায় দেশটিতে সাইবার অপরাধের সংখ্যা ১১.৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া খবর নতুন কিছু নয়। কিন্তু অবাক করার মতো বিষয় হলো ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, টুইটারের মত মাধ্যমগুলোতে ফেক নিউজ দ্রুত ছড়িয়ে পড়া। বিশ্বে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ব্যবহার বৃদ্ধির সঙ্গে বাড়ছে ফেক নিউজ।

সাম্প্রতিক এক গবেষণায় বলা হয়েছে, বিশ্বের মোট ভুয়া খবরের ছয়টির একটি ভারত থেকে ছড়ানো হয়। গত এক বছর ও মহামারির সময়ে এই সংখ্যা কয়েকগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর অন্যতম কারণ হল ভারতে প্রচুর মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করেন এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের সঠিক ধারণা ছাড়াই বিভিন্ন ধরণের তথ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে থাকেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *