মাঠে বল বাহিরে পুরান ….অতপর সেরা ফিল্ডিং সেভ

খেলাধুলা

আইপিএলে রোববার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে রাজস্থান রয়্যালসের রান তাড়ার অষ্টম ওভারের ঘটনা সেটি। লেগ স্পিনার মুরুগান অশ্বিনের বলে পুল করেছিলেন সাঞ্জু স্যামসন। বল ভেসে যাচ্ছিল সীমানা ছাড়িয়ে।

পিছু ছুটতে থাকা পুরান সীমানার ভেতর থেকে ফুল লেংথ ডাইভ দেন সীমানার বাইরে। হাওয়ায় ভেসে থাকা অবস্থায় মুঠোয় জমান বল। কিন্তু তার শরীর পড়ে যাচ্ছিল সীমানার ওপারে। ছক্কা হবে বুঝতে পেরে শেষ মুহূর্তে বল মাঠের ভেতরে ছুঁড়ে দেন পুরান। বারবার রিপ্লে দেখে তৃতীয় আম্পায়ার নিশ্চিত হন, ছক্কা হয়নি। কেবল দৌড়ে এসেছে দুই রান। এই সবকিছু হয়ে যায় স্রেফ চোখের পলকেই!

আধুনিক ক্রিকেটে ফিটনেস ও ফিল্ডিংয়ের মানে যে উন্নতি হয়েছে, বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি জমানায় ফিল্ডিং যেভাবে এগিয়ে চলেছে, চোখধাঁধানো অনেক কিছুই এখন দেখা যায়। সেসব মাথায় রেখেও পুরানের এই সেভ যেন অবিশ্বাস্য।

তার এই ফিল্ডিং দেখে চোখ কপালে উঠে যায় ধারাভাষ্যকারদের। তখন ধারাভাষ্যে থাকা কেভিন পিটারসেন বলেন, “আমার দেখা আইপিএলের সেরা ফিল্ডিং সেভ।” পরে আরেক ধারাভাষ্যকার মাইকেল স্ল্যাটার আরও বাড়িয়ে দেন মুগ্ধতার সীমানা, “শুধু আইপিএল নয়, যে কোনো ক্রিকেটেই আমার দেখা সেরা সেভ।”

আরেক ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে একই সুর তুলেছেন টুইটারে।

“ আমার দেখা সেরা ফিল্ডিং সেভগুলোর মধ্যে একটি এইমাত্র করে দেখিয়েছে পুরান। বল সীমানার প্রায় ২ গজ ছাড়িয়ে চলে গিয়েছিল, সেখান থেকে ফেরত আনা… ওয়াও! ফিল্ডিংয়ের মান আমাদেরকে সামনে আরও কোথায় নিয়ে যাবে…!”

পুরানের ফিল্ডিং কীর্তির ওজন আরও বেড়ে যায় শচিন টেন্ডুলকারের টুইটে।

“ আমার জীবনে দেখা সেরা সেভ এটিই, স্রেফ অবিশ্বাস্য!”

পুরানের দলের ফিল্ডিং কোচ জন্টি রোডস, অনেকের চোখেই যিনি সর্বকালের সেরা ফিল্ডার। পুরানের সেভ দেখে ডাগ আউট থেকে তালি দিতে দিতে কুর্নিশ জানান রোডস। পরে টেন্ডুলকারের টুইট শেয়ার করে তিনি জানালেন নিজের উচ্ছ্বাস।

“শচিন টেন্ডুলকার যখন তার দেখা সেরা সেভ বলছে, এরপর আসলে আর কোনো প্রশ্নই থাকে না। এটিই সর্বকালের সেরা সেভ। পুরানের অসাধারণ কাজ।”

ওই ফিল্ডিংয়ের মতো ম্যাচটিও ছিল রোমাঞ্চে ঠাসা। রান তাড়ার রেকর্ড গড়ে তাতে পাঞ্জাবকে হারিয়ে দেয় রাজস্থান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *